শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

শিরোনাম

আইওয়ার নৈশভোজে ট্রাম্পকে চ্যালেঞ্জ জানালেন শুধু একজন!

রবিবার, জুলাই ৩০, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

আইওয়া, যুক্তরাষ্ট্র: যুক্তরাষ্ট্রের আইওয়া রাজ্যের নৈশভোজ। সেখানে যুক্তরাষ্ট্রের আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থিরা একই অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেছেন। তাদের সংখ্যা এক ডজন। কিন্তু, ট্রাম্পের বিরুদ্ধে তাদের সবাই নীরব রইলেন। চ্যালেঞ্জ জানালেন শুধু একজন। এতে রিপাবলিকান দলের ওপর ট্রাম্পের যে দখল, তাই জোরালো হয়ে প্রকাশ পেল। এ নৈশভোজ হয় লিঙ্কন ডিনারে।

ওই অনুষ্ঠানে রিপাবলিকান দল থেকে ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মনোনয়ন প্রার্থীরা যখন মঞ্চে উঠে আসেন, সাথে সাথে উচ্চস্বরে বেজে ওঠে মিউজিক- ‘অনলি ইন আমেরিকা’। যখন ট্রাম্পের পালা আসে, তখন গানের দুটি লাইন বাজানো হয়। তা হল- ‘ওয়ান কুড এন্ড আপ গোয়িং টু প্রিজন/ ওয়ান জাস্ট মাইট বি প্রেসিডেন্ট’। যার অর্থ হতে পারে- শেষ পর্যন্ত কেউ কারাগারে যেতে পারেন। কেউ একজন হতে পারেন প্রেসিডেন্ট। এর মধ্য দিয়ে ট্রাম্প এটা লুকানোর চেষ্টা করেননি যে, তিনি দুটি ফৌজদারি অপরাধের বিচারের মুখোমুখি। সহসাই আরো দুটি মামলায় অভিযুক্ত হতে পারেন। তবে, তিনি এ অভিযোগকে গর্ব হিসেবে নিয়েছেন। তিনি মনে করেন, অন্যায়ভাবে তাকে শুধুই রাজনৈতিক কারণে টার্গেট করা হচ্ছে।

আইওয়ার ওই নৈশভোজে উপস্থিত রিপাবলিকান এক হাজার ২০০ সমর্থকের উদ্দেশে বক্তৃতা করেছেন ট্রাম্প। এ রাজ্যটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, আগামী জানুয়ারিতে মনোনয়ন লড়াইয়ের প্রথম নির্বাচন হবে এ রাজ্যে।

ট্রাম্প সেখানে বক্তব্যে বলেছেন, ‘যদি হোয়াইট হাউজের দৌড়ে ফের প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করতেন, তাহলে তাকে বিচারের মুখোমুখি হতে হতো না।’

এ রাতে ট্রাম্পের দিকে শুধু চ্যালেঞ্জ ছুড়েছিলেন একজন মাত্র ব্যক্তি। তিনি উইল হার্ড। খুব অল্প পরিচিত। তিনি টেক্সাসের সাবেক কংগ্রেসম্যান এবং সিআইএর কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, ‘ডনাল্ড ট্রাম্প ‘আমেরিকা গ্রেট এগেইন’ এ টার্গেটের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চাইছেন না। তিনি জেল থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য নির্বাচন করছেন। সাথে সাথে চারদিক থেকে তার প্রতি দুয়োধ্বনি ওঠে। একজন ব্যক্তি চিৎকার করে বলতে থাকেন ‘গো হোম’। এতে স্পষ্ট হয় যে, তিনি ওই নৈশভোজে সমর্থন হারিয়েছেন।

সিএন/এমএ

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন