রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪

শিরোনাম

আখের ফলন ও চিনি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ২০ শতাংশ বাড়ানোর নির্দেশ শিল্প সচিবের

শুক্রবার, অক্টোবর ১, ২০২১

প্রিন্ট করুন
আখের ফলন ও চিনি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ২০ শতাংশ বাড়ানোর নির্দেশ শিল্প সচিবের
আখের ফলন ও চিনি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ২০ শতাংশ বাড়ানোর নির্দেশ শিল্প সচিবের

ঢাকা: শিল্প সচিব জাকিয়া সুলতানা এ বছর আখ চাষের জমির পরিমাণ, আখের ফলন ও চিনির মোট উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা গত অর্থ বছরের চেয়ে শতকরা ২০ ভাগ বাড়িয়ে তা অর্জনে একযোগে কাজ করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশনের (বিএসএফআইসি) আওতাধীন রাজশাহী সুগার মিলস, নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস ও নাটোর সুগার মিলস লিমিটেড পরিদর্শনের সময় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে মত বিনিময়কালে তিনি এ নির্দেশনা দেন।

জাকিয়া সুলতানা বলেন, ‘স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতায় অবৈধ পাওয়ার ক্রাশিং মেশিন (গুড় মাড়াই কল) পরিচালনা কার্যক্রম বন্ধ রাখা নিশ্চিত করতে হবে। মিলজোন চাষীদের অন্যত্র আখ বিক্রয় রোধে সচেতনতা ও প্রচারণামূলক কার্যক্রমের পাশাপাশি আইনি তৎপরতা অব্যাহত রাখতে হবে। উন্নত, মানসম্পন্ন ও অধিক ফলনশীল আখবীজের বপন বাড়ানোর উদ্যোগ নিতে হবে। বিশেষ করে, চাপাইনবাবগঞ্জে ব্যবহৃত আখবীজ ভ্যারিটির পরীক্ষামূলক ফলন যাচাই করা যেতে পারে।’

তিনি কারখানার সব কর্মকর্তাকর্মচারীর ব্যক্তিগত একশন প্ল্যান (আইএপি)  দাখিল করারও নির্দেশ দেন।

ওভারহেড কস্ট কমানোসহ চিনির উৎপাদন বাড়াতে সামগ্রিক পরিকল্পনা প্রণয়নের উপর জোর দিয়ে  জাকিয়া সুলতানা বলেন, ‘রাজশাহী সুগার মিল চালু রাখার লক্ষ্যে বিদেশি বিনিয়োগ কাজে লাগিয়ে সরকারের চিনির  পাশাপাশি বহুমুখী পণ্য উৎপাদনের (ডাইভারসিফিকেশন) পরিকল্পনা রয়েছে।’

তিনি নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলের স্ক্র‍্যাব মালামাল বিধি মোতাবেক বিক্রয়ের পাশাপশি পুরোনো মেশিনারিজ রিপ্লেসের উদ্যোগ নিয়ে শ্রমিক কর্মকর্তা-কর্মচারী সবাইকে আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার সাথে স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের কল্যাণে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

কৃষি মন্ত্রণালয়ের সাথে সমন্বয় করে আখ চাষীদের জন্য ভর্তুকির ব্যাবস্থা নিতেও তিনি সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।

এ সময় সচিব  জাকিয়া সুলতানা নর্থ বেংগল সুগার মিল জোনের চাষীদের নিয়ে আখ রোপণ মৌসুমের শুভ উদ্বোধন করেন। পরিদর্শনকালে শিল্প সচিব সব সুগার মিলে গাছের চারা রোপণ করেন।

সুগারমিল পরিদর্শন শেষে তিনি রাজশাহী বিসিক শিল্পনগরী-দুই প্রকল্পের কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। সুগার মিল জোনো এলাকায় ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো কোম্পানি কর্তৃক করপোরেট সোশ্যাল রেসপন্সিবিলিটির  (সিএসআর) অংশ হিসেবে আখ চাষীদের আখবীজ খাতে ২০২১-২২ অর্থবছরে চার কোটি টাকা বিতরণের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান এবং চিনি কলগুলো লাভজনক করতে এগুলোর কার্যক্রম মনিটরিংয়ের এর জন্য গঠিত মন্ত্রণালয়ের মনিটরিং টিমের সদস্যদের নির্দেশনা দেন।

এ সময় শিল্প মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মু আনোয়ারুল আলম, নাটোরের জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ,
বিএসএফআইসির উর্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ, সুগার মিলসের ব্যবস্থাপনা পরিচালকবৃন্দ, কর্মকর্তা কর্মচারীসহ স্থানীয় আখ চাষীরা উপস্থিত ছিলেন।

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন