বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪

শিরোনাম

আর গণহত্যায় জড়িত থাকব না বলে নিজের গায়ে আগুন যুক্তরাষ্ট্রের সেনার

মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ২৭, ২০২৪

প্রিন্ট করুন

ওয়াশিংটন ডিসি, যুক্তরাষ্ট্র: গাজা যুদ্ধের প্রতিবাদে ওয়াশিংটন ডিসিতে ইসরায়েলের দূতাবাসের বাইরে ‘আমি আর গণহত্যার সাথে জড়িত থাকব না’ বলে নিজের গায়ে আগুন ধরিয়ে দিয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের বিমান বাহিনীর এক সক্রিয় সদস্য। তাৎক্ষণিকভাবে নাম প্রকাশ না করা ওই ব্যক্তি রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুর একটার কিছু পূর্বে দূতাবাসে যান ও গায়ে আগুন ধরিয়ে দিয়ে ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম টুইচে লাইভ স্ট্রিমিং করেন।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কর্মকর্তাদের ধারণা, ওই ব্যক্তি নিজের ফোনে লাইভস্ট্রিম শুরু করে নিজের গায়ে আগুন লাগিয়ে দেন।

পরে ভিডিওটি প্ল্যাটফর্ম থেকে সরিয়ে ফেলা হয়, তবে আইন প্রয়োগকারী কর্মকর্তারা একটি অনুলিপি সংগ্রহ ও পর্যালোচনা করেছেন।

ওই ব্যক্তিকে চলমান তদন্তের ব্যাপারে প্রকাশ্যে আলোচনা করার অনুমতি দেয়া হয়নি এবং নাম প্রকাশ না করার শর্তে এপির সাথে কথা বলেছেন।

তাৎক্ষণিকভাবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানায়নি পুলিশ।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু যখন গাজার দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর রাফায় সামরিক অভিযানের জন্য মন্ত্রিসভার অনুমোদন চাইছেন, তখন এ ঘটনা ঘটল। তবে, গাজায় ইসরায়েলের সামরিক অভিযানে ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে গণহত্যার দাবিসহ সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

ইসরায়েল বরাবরই গণহত্যার অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে। হামাসের সাথে যুদ্ধে আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে বলে দাবি করে আসছে ইসরায়েল।

আটলান্টার দমকল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গেল ডিসেম্বরে আটলান্টায় ইসরায়েলের কনস্যুলেটের বাইরে এক ব্যক্তি আত্মহত্যা করেন ও আত্মহত্যার সময় পেট্রোল ব্যবহার করেন। ঘটনাস্থলে একটি ফিলিস্তিনি পতাকা পাওয়া গেছে ও ঘটনাটিকে ‘চরম রাজনৈতিক প্রতিবাদ’ বলে মনে করা হচ্ছে।

বিবৃতিতে ওয়াশিংটন মেট্রোপলিটন পুলিশ বিভাগ জানিয়েছে, তাদের কর্মকর্তারা যুক্তরাষ্ট্রের সিক্রেট সার্ভিস কর্মকর্তাদের সহায়তার জন্য ইসরায়েলের দূতাবাসের বাইরে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন ও একটি সন্দেহজনক গাড়ি পরীক্ষা করতে তাদের বোমা স্কোয়াডকেও ডাকা হয়েছিল।

পুলিশ জানিয়েছে, গাড়িতে কোন বিপজ্জনক বস্তু পাওয়া যায়নি।

সিএন/আলী

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন