বুধবার, ২২ মে ২০২৪

শিরোনাম

কর ফাঁকির অভিযোগ অস্বীকার বাইডেনের ছেলে হান্টারের

রবিবার, জুলাই ৩০, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

ডেলওয়ার, যুক্তরাষ্ট্র: কর ফাঁকির মামলায় নিজের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ছেলে হান্টার বাইডেন। বুধবার (২৬ জুলাই) যুক্তরাষ্ট্রের ডেলওয়ারের একটি আদালতে মামলা সংক্রান্ত জটিলতার জন্য উপস্থিত হয়ে নিজের বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেন তিনি।

হান্টার বাইডেনের বিরুদ্ধে আনা দুটি কর সংক্রান্ত অপরাধের অভিযোগে বলা হয়, ‘২০১৭ ও ২০১৮ সালে তার করযোগ্য আয় ছিল ১৫ লাখ ডলারের বেশি। তবে, সে সময় আয়কর দিতে ব্যর্থ হন তিনি। অপর দিকে, ওই দুই বছরের জন্য আইআরএসের কাছে এক লাখ ডলারেরও বেশি বকেয়া কর ছিল তার।’

এর আগে, ২০১৮ সালে একটি আগ্নেয়াস্ত্র কেনার সময় কাগজপত্রে মিথ্যা তথ্য দেয়ার অভিযোগ আনা হয় বাইডেন পুত্রের বিরুদ্ধে; যা গেল পাঁচ বছর ধরে বিচার বিভাগের তদন্তাধীন রয়েছে। দোষী সাব্যস্ত হলে এ মামলায় সর্বোচ্চ দশ বছরের কারাদন্ড ও ২৫০ লাখ ডলার জরিমানা হতে পারে হান্টার বাইডেনের। এসব অভিযোগ থেকে অব্যহতি পেতে গেল মাসে এ সংক্রান্ত কাগজ-পত্র জমা দেন হান্টারের আইনজীবী ক্রিস ক্লার্ক। যা থেকে হান্টার বাইডেন দোষ স্বীকার করতে পারেন- এমন চুক্তিতে পৌঁছানোর ইঙ্গিত পাওয়া যায়।

এবার অবৈধ অস্ত্র রাখার অভিযোগে কারাদণ্ড এড়াতে কর ফাঁকির মামলায় দোষ স্বীকার করতে বুধবার (২৬ জুলাই) যুক্তরাষ্ট্রে ডেলাওয়ার‌ আদালতে পৌঁছান বাইডেনের ছেলে। আবেদনটি আদালতে তোলার পর প্রচণ্ড উদ্বিগ্ন দেখায় হান্টার বাইডেনকে। প্রায় তিন ঘণ্টা ধরে চলে বিচারিক কার্যক্রম। প্রেসিডেন্টের ছেলের দোষ স্বীকারের বিষয়ে ঐতিহাসিক চুক্তি পর্যালোচনা করতে আরো সময় লাগতে পারে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট বিচারক।

এ দিকে, বিচারকের এমন সিদ্ধান্তের পর রিপাবলিকানদের তোপের মুখে পড়েছেন জো বাইডেন। বিরোধীদের অভিযোগ, ব্যক্তিগত স্বার্থ উদ্ধারে পিতার ক্ষমতার অপব্যবহার করছেন হান্টার বাইডেন।

সিএন/এমএ

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন