রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

শিরোনাম

খুচরা বাজারে কাঁচা মরিচের কেজি এক হাজার টাকা!

রবিবার, জুলাই ২, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

সিলেট: সিলেটের খুচরা বাজারে কাঁচা মরিচ এক হাজার টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। হঠাৎ কাঁচা মরিচের দাম এভাবে বেড়ে যাওয়ায় অনেকেই ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করেছেন। সিলেটের বিভিন্ন বাজার ঘুরে ক্রেতা-বিক্রেতাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, সপ্তাহখানেক ধরে কাঁচা মরিচের দাম বেড়েই চলছে। এর মধ্যে, ঈদুল আযজার আগের দিন থেকে খুচরা বাজারে কাঁচা মরিচের কেজি এক হাজার টাকায় পৌঁছায়। কিন্তু, দশ দিন আগেও কাঁচা মরিচ ১২০-১৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছিল। বর্তমানে পাইকারি বাজারে ৬০০-৭০০ টাকা কেজি দরে কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে।

সিলেট সিটির পীরপুরের বাসিন্দা রহিম উদ্দিন বলেন, ‘দাম বাড়ায় অনেকই কাঁচা মরিচ খাওয়া কমিয়ে দিয়েছেন। সাধারণ মানুষ আগে যেখানে কেজি বা আধা কেজি পরিমাণে কাঁচা মরিচ কিনতেন, এখন ১০০-২০০ গ্রাম করে কিনছেন।’

ভাসমান সবজি ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘পাইকারি বাজার থেকে সবজি কিনে এনে বিভিন্ন পাড়া-মহল্লা ও ফুটপাতে বিক্রি করি। বর্তমানে কাঁচা মরিচ এক হাজার টাকা কেজি দরে বিক্রি করছি।’

সিটির মাছুদীঘিরপাড় এলাকার বাসিন্দা আদ্রিতা অর্পা বলেন, ‘কোরবানির ঈদকে টার্গেট করে ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে কাঁচা মরিচের দাম বাড়িয়েছেন। প্রতি বছর রমজানের ঈদে কাঁচা মরিচসহ অন্যান্য সবজির দাম বাড়লেও এবার বেড়েছে কোরবানির ঈদে।’

সুবহানী ঘাট কাঁচা বাজারের আড়তদার সাহেদ হোসেন বলেন, ‘কাঁচা মরিচ সিলেটে চাষাবাদ হয় না। এখানকার বাজারে যে কাঁচা মরিচ পাওয়া যায়, সবই সিলেটের বাহিরে থেকে নিয়ে আসা হয়। বেশিরভাগ মরিচ আসে বগুড়া থেকে। সেখানে দাম বেড়ে যাওয়ায় এর প্রভাব পড়েছে সিলেটের বাজারে।’

সুবহানীঘাটস্থ কাঁচাবাজার ট্রেড সেন্টার ব্যবসায়ী কমিটির সাধারণ সম্পাদক রাজু বলেন, ‘ঈদুল আযহার আগ থেকেই কাঁচা মরিচের দাম চড়া ছিল। আর ঈদের সময় সরবরাহ কম থাকায় খুচরা বাজারে দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন বিক্রেতারা। সরবারহ স্বাভাবিক হয়ে আসলে শিগগিরই দাম কমে আসবে।’

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর সিলেটের সহকারী পরিচালক আমিরুল মাসুদের কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এ মুহূর্তে কাঁচা মরিচের দাম চড়া এটা সত্য।’ তবে, এ ব্যাপারে আর কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি তিনি

সিএন/এমএ

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন