বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪

শিরোনাম

চট্টগ্রামে ঢিলেঢালাভাবে চলছে অবরোধ-হরতাল

রবিবার, নভেম্বর ৫, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

চট্টগ্রামে ঢিলেঢালাভাবে চলছে বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলোর ডাকা ৪৮ ঘণ্টার অবরোধ-হরতাল। রোববার (৫ নভেম্বর) সকালে নগরের সড়কগুলোতে যানবাহনের সংখ্যা কম ছিল। তবে দুপুরে নগরের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে যানজট দেখা যায়। তবে, অবরোধের কারণে দূরপাল্লার বাস ও পণ্যবাহী গাড়ি কম চলাচল করছে। ঢাকা-চট্টগ্রাম এবং চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে অন্যান্য দিনের তুলনায় যান চলাচল কম রয়েছে।

অবরোধ-হরতালের কারণে চট্টগ্রামে ট্রেনের শিডিউলে কোনো পরিবর্তন আসেনি। যথাসময়ে ট্রেনগুলো স্টেশন ছেড়ে গেছে এবং যথাসময়ে স্টেশনে পৌঁছেছে। অবরোধ-হরতালে দুয়েকটি স্থানে ঝটিকা মিছিল ছাড়া মাঠ পর্যায়ে তেমন কোনো কর্মসূচি পালন করতে দেখা যায়নি বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলোকে। এদিন চট্টগ্রামের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে আওয়ামী লীগ এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের শান্তি সমাবেশ করতে দেখা যায়।

এর আগে, আজ (রোববার) ভোরে পতেঙ্গার ধুমপাড়া মোড়ে দাঁড়িয়ে থাকা একটি বাসে আগুন দেওয়া হয়। সড়কের পাশে বাসটি রেখে চালক নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন। হঠাৎ অটোরিকশায় চড়ে দুইজন লোক এসে বাসটিতে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়।

জানা গেছে, রোববার ভোর ৬টায় বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলোর ৪৮ ঘণ্টা রেল ও নৌপথ অবরোধ শুরু হয়। মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) সকাল ছয়টায় এ কর্মসূচি শেষ হবে। একইসঙ্গে, দলের জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীকে গ্রেপ্তার ও রিমান্ডে নেওয়ার প্রতিবাদে চট্টগ্রামে আজ (রোববার) সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালন করছে চট্টগ্রাম নগর এবং জেলা উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি।

এর আগে, বৃহস্পতিবার (২ নভেম্বর) রাতে রাজধানীর গুলশানের একটি বাসা থেকে আমীর খসরুকে গ্রেপ্তার করা হয়। এদিন সন্ধ্যার পর গুলশান এলাকা থেকে বিএনপি মিডিয়া সেলের আহ্বায়ক জহির উদ্দিন স্বপনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তাদের দুজনকে শুক্রবার (৩ নভেম্বর) পুলিশ কনস্টেবল আমিরুল হক হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠায় পুলিশ। পরে পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তাদের ছয়দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন