রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪

শিরোনাম

চীন নয়, করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্র থেকে!

শনিবার, জুলাই ২, ২০২২

প্রিন্ট করুন

চলমান ডেস্ক: পুরো পৃথিবীকে স্তব্ধ করে দেওয়া করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি নিয়ে ভিন্ন তথ্য দিয়েছে গবেষকেরা। এতদিন চীন থেকে ভাইরাসটি ছড়িয়েছে বলে দাবি করা হলেও এবার বিশ্বখ্যাত চিকিৎসা সংক্রান্ত সাময়িকী ল্যানসেট জার্নাল বলছে ভাইরাসটি যুক্তরাষ্ট্রের গবেষণাগার থেকে ছড়িয়েছে। 

সাময়িকীটির কোভিড-১৯ কমিশন প্রধান জেফ্রি ডেভিডের দাবি, চীন নয় বরং করোনা ছড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের একটি পরীক্ষাগার থেকে। তবে এ বিষয়ে নিরপেক্ষভাবে তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ প্রয়োজন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

২০১৯ সালের শেষ দিকে চীনের উহান শহরে প্রথমবারের মতো মানবদেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এরপর দ্রুতই ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন ৫৫ কোটির বেশি মানুষ। আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬৩ লাখের বেশি।  

সম্প্রতি বিভিন্ন দেশে আবারও বাড়তে শুরু করেছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। সবাই যখন নতুন ঢেউ নিয়ে শঙ্কায়, তখনই ভাইরাসটির উৎপত্তি নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিল ল্যানসেট জার্নাল। 

শুক্রবার (১ জুলাই) রুশ সংবাদমাধ্যম আরটি এক প্রতিবেদনে জানায়, ল্যানসেট জার্নালের কোভিড-১৯ কমিশনের প্রধান জেফ্রি ডেভিড দাবি করেছেন, চীন নয় বরং যুক্তরাষ্ট্রের একটি পরীক্ষাগার থেকে ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস। স্পেনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি করেন। 

জেফ্রি ডেভিড জানান, তার দাবির শতভাগ সত্যতা প্রমাণে আরও তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ প্রয়োজন। তবে তার কাছে থাকা প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্রের পরীক্ষাগার থেকেই করোনা ছড়িয়েছে বলেও জানান তিনি।  

জেফ্রির অভিযোগ, করোনার উৎপত্তি কোথায় তা জানতে ভাইরাস ডেটাবেস, স্যাম্পল, সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার শুরুর দিকে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের ই-মেইল এবং পরীক্ষাগারগুলো খতিয়ে দেখা জরুরি। তবে এ পর্যন্ত কোনো দেশই নিরপেক্ষভাবে করোনাভাইরাসের উৎপত্তি খুঁজে দেখার উদ্যোগ নেয়নি বলেও জানান তিনি। 

এর আগে ল্যানসেট জার্নালের কোভিড-১৯ কমিশনের পাশাপাশি নিল হ্যারিসন নামে মার্কিন এক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকও দাবি করেন, করোনাভাইরাস পরীক্ষাগারে সৃষ্টি করা হয়েছে।  

যদিও পর্যাপ্ত তথ্য-উপাত্ত না থাকায় গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানায়, করোনাভাইরাস বাদুড়ের মাধ্যমে মানুষের দেহে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কাই সবচেয়ে বেশি।

আইআই/সিএন

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন