বুধবার, ২২ মে ২০২৪

শিরোনাম

‘ঠিকানা’র পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে সাত লেখককে সম্মাননা

রবিবার, জুলাই ২৩, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

নিউইয়র্ক, যুক্তরাষ্ট্র: বাংলা সংবাদপত্র ‘ঠিকানা’র প্রকাশনার ৩৪ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান রোববার (১৬ জুলাই) যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের কুইন্সের ওয়ার্ল্ডস ফেয়ার মেরিনাতে অনুষ্ঠিত হয়েছে। অভিনেত্রী শিরীন বকুল ও সাংবাদিক আশরাফুল হাসান বুলবুলের সঞ্চালনায় এবং নাশরাত আর্শিয়ানা চৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠানের বিভিন্ন পর্বে ছিল উদ্বোধনী পর্ব, উদ্বোধনী নৃত্য, স্বাগত পর্ব। দেশাত্মবোধক গানের সাথে উদ্বোধনী নৃত্য পরিবেশন করে নীলা জেরিন ডান্স একাডেমি।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন ঠিকানার প্রধান সম্পাদক মুহম্মদ ফজলুর রহমান, ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাসের মিনিস্টার (প্রেস) এজেডএম সাজ্জাদ হোসেন, নিউইয়র্কে বাংলাদেশ কনস্যুলেটের ফার্স্ট সেক্রেটারি প্রসূন চক্রবর্তী, ঠিকানার সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি এমএম শাহীন।

অনুষ্ঠানে সাহিত্য, কবিতা ও ছড়া লিখে ঠিকানার পাতাকে সমৃদ্ধ করায় সাতজনকে সম্মাননা দেয়া হয়। তারা হলেন সাহিত্যে এবিএম সালেহ উদ্দিন ও রোমেনা লোদী, কবিতায় কাজী আতিক, বেনজীর শিকদার ও রওশন হাসান এবং ছড়ায় মনজুর কাদের ও মামুন জামিল। তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন নিউইয়র্কের স্টেট অ্যাসেম্বলি মেম্বার জেনিফার রাজকুমার, নিউইয়র্ক সিটি মেয়র অফিসের ডেপুটি কমিশনার ফর ট্রেড ইনভেস্ট অ্যান্ড ইনোভেশন দিলীপ চৌহান, নিউইয়র্ক সিটি মেয়র অফিস অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিসেস চিফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অফিসার মীর বাসার, সিটি মেয়র অফিসের এথনিক অ্যান্ড কমিউনিটি মিডিয়া এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর মিস্টার হোজে বেওনা, ঠিকানা গ্রুপের চেয়ারম্যান এমএম শাহীন ও প্রধান সম্পাদক মুহম্মদ ফজলুর রহমান।

এছাড়া, যুক্তরাষ্ট্রে বেড়ে ওঠা ও বিশেষ অবদান রেখে চলা নাবিল আলমগীর ও জিহান ওয়াজেদকে ‘বাংলাদেশিস ব্রেকিং বেরিয়ার অ্যাওয়ার্ড’ শিরোনামে পুরস্কার দেয়া হয়।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা খান মিরাজ, ব্যবসায়ী গিয়াস আহমেদ, বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি আব্দুর রব মিয়া, সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন সিদ্দিকী, ট্রাস্টি আজিমুর রহমান বুরহান, রাজনীতিবিদ মোর্শেদ আলম, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফখরুল আলম।

উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সোসাইটির বর্তমান কোষাধ্যক্ষ নওশেদ হোসেন, কার্যকরী সদস্য আখতার বাবুল, সাদি মিন্টু, ফারহানা চৌধুরী।

শুভানুধ্যায়ীদের মধ্যে বক্তব্য দেন ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, মর্টগেজ বিশেষজ্ঞ জন ফাহিম, ইমিগ্র্যান্ট এল্ডার হোম কেয়ারের প্রেসিডেন্ট গিয়াস আহমেদ, রিয়েল এস্টেট ইনভেস্টর নুরুল আজিম, নিউইয়র্ক বাংলাদেশি লায়ন্স ক্লাবের সভাপতি শাহনেওয়াজ, ব্রঙ্কসের কমিউনিটি বোর্ড-৯ এর চেয়ারম্যান মোহাম্মদ এন মজুমদার, ব্যবসায়ী ফিরোজ আহমেদ, রাজনীতিবিদ কাজী সাখাওয়াত আজম, জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের ভাইস প্রেসিডেন্ট মঞ্জুর আহমেদ চৌধুরী, ফাইন্যান্সিয়াল অ্যাডভাইজর মিজানুর রহমান, কমিউনিটি লিডার নাসির আলী খান পল, আল আমিন মসজিদের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি জয়নাল আবেদীন, জুডিশিয়াল ডেলিগেট সাবুল উদ্দিন, খানস টিউটোরিয়ালের চেয়ারপারসন নাঈমা খান, বাংলাদেশ সোসাইটির কার্যকরী পরিষদের সদস্য ফারহানা চৌধুরী, জেবিবিএর সেক্রেটারি জেনারেল ফাহাদ সোলায়মান, সিপিএ জাকির চৌধুরী, জ্যাকসন হাইটস এলাকাবাসীর সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলম নমি, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান সেলিম, কিউ টেকের ভাইস প্রেসিডেন্ট ফরিদ উদ্দিন, কমিউনিটি নেতা আবু তালেব চৌধুরী চান্দু।

সাংস্কৃতিক পর্বে গান করেন উদীপ্ত চৌধুরী ও শিল্পী পলি সায়ন্তী।

সিএন/এমএ

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন