রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

শিরোনাম

নবাগত শিক্ষার্থীদের বরণ করল বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি

রবিবার, ফেব্রুয়ারী ৫, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

ঢাকা: ‘জ্ঞান আহরণের জন্য শুধুমাত্র পাঠ্য বইয়ের শিক্ষাই যথেষ্ঠ নয়। ত্যাগ ছাড়া মহৎ কোন সৃষ্টি সম্ভব নয়। দেশ তোমাদের কি দিল, তার চেয়ে তোমরা দেশের জন্য কি দিতে পারলে, সেটাই বড় বিষয়।’

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির (বিইউ) নবাগত ছাত্রছাত্রীদের নবীনবরণ অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন। রোববার (৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে মোহাম্মদপুরের আদাবরস্থ ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাসে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্প্রিং সেমিস্টারে ভর্তিকৃত নবীন শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়া হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) সদস্য প্রফেসর মো. সাজ্জাদ হোসেন। অতিথি ছিলেন রেনেসাঁ গ্রুপের পরিচালক আয়েশা আক্তার ডালিয়া। সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপ-উপাচার্য প্রফেসর মো. জাহাঙ্গীর আলম।

অনুষ্ঠানে নবীন শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানিয়ে জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, ‘সুন্দর শিক্ষার পরিবেশ ও অভিজ্ঞ শিক্ষক পরিচালিত বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত এ ইউনিভার্সিটির গ্র্যাজুয়েটগন দেশে ও বিদেশে নিজ যোগ্যতায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকরি পাচ্ছে এবং তারাই এ বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম পৃথিবীর নানা প্রান্তে ছড়িয়ে দিচ্ছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমি জেনে আনন্দিত হয়েছি যে, করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতেও এ বিশ্ববিদ্যালয় অত্যন্ত দক্ষতার সাথে তার শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করেছে।’ তিনি শিক্ষার্থীদের পাঠ্যপুস্তক ছাড়াও বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার উপর গুরুত্বারোপ করেন। একইসাথে তিনি বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির চলমান শিক্ষার পরিবেশ উন্নয়নে তার সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশে মো. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ‘শিক্ষা জীবনে আজকের এ অনুষ্ঠান তোমাদের কাছে স্মরণীয় হয়ে থাকবে। এখন থেকে পরিবার ও সমাজের জন্য তোমাদের নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করার সংগ্রামে মনোনিবেশ করতে হবে। বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি সরকারি রূপকল্প বাস্তবায়নে ইউজিসির নির্দেশনা অনুসরণ করে এক ধাপ অগ্রসর হয়েছে। দৃষ্টিনন্দন নতুন স্থায়ী ক্যাম্পাসে তারা পাঠদান কার্যক্রম শুরু করেছে। নতুন পাঠ্যক্রম প্রস্তুত করেছে। আমি আশা করব, ইউজিসির অন্যান্য অনুশাসন ও পরামর্শ তারা অনুসরণ করে দেশে উন্নত মানব সম্পদ সৃষ্টিতে শতভাগ স্বার্থকতার প্রমাণ রাখবে।’

জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে নবীনদের উদ্দেশ্যে স্বাগত বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মাহাবুবুল হক (অব.)। অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জানান বিইউর পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার কাজী তাইফ সাদাত। এ ছাড়া, বিভাগীয় চেয়ারম্যানদের পক্ষ থেকে নবাগত ছাত্রছাত্রীদের শুভেচ্ছা জানান বিজনেস অনুষদের ডীন প্রফেসর মো. তাজুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে বিকালে বিইউর ছাত্রছত্রীদের নিজস্ব পরিবেশনার পাশাপাশি ব্যান্ড দল ওয়ারফেজ এর পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিপুল সংখ্যক ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক-কর্মকর্তা ও কর্মচারি ছাড়াও ছাত্রছাত্রীদের অভিভাবকরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

সিএন/এমএ

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন