বুধবার, ২২ মে ২০২৪

শিরোনাম

নারীদের মধ্যে সবচেয়ে জোরে ঢেকুর তোলার রেকর্ড ম্যারিল্যান্ডের কিম্বারলির

বৃহস্পতিবার, আগস্ট ৩, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

মেরিল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র: গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে যে কত বৈচিত্র্যপূর্ণ বিশ্বরেকর্ড লিপিবদ্ধ হয়, তা সাধারণ মানুষের চিন্তারও বাইরে। কেউ সবচেয়ে বড় চুল রেখে রেকর্ড করে, কেউ বা সবচেয়ে বেশি ডিগ্রিতে পা বাঁকিয়ে এ রকম নানা বৈচিত্র্যপূর্ণ করে গিনেস বুকে নাম লেখায়। এবার যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ডের বাসিন্দা কিম্বারলি উইন্টার করলেন এক বিচিত্র রেকর্ড। এখন পর্যন্ত নারীদের মধ্যে সবচেয়ে জোরে ঢেকুর তোলার রেকর্ডটি নিজের করে নিলেন। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের দেয়া তথ্য মতে, তিনি ১০৭ দশমিক তিন ডেসিবল মাত্রায় ঢেকুর তুলেছেন।

ব্লেন্ডার (৭০-৮৯ ডেসিবল), ইলেক্ট্রিক হ্যান্ড ড্রিলের (৯০-৯৫ ডেসিবল) আওয়াজ অনায়াসেই হার মানবে কিম্বার্লির ঢেকুরের সামনে। এমনকি কিছু মোটরসাইকেলের ইঞ্জিনের সাথেও তার ঢেকুরের আওয়াজের মাত্রা টেক্কা দিতে সক্ষম।  

ছোটোবেলা থেকেই কিম্বারলির ঢেকুরের আওয়াজ একটু জোরেই ছিল। অনেকেই তাতে বিরক্ত হতেন। কিন্তু, যত বড় হতে থাকলেন, তার ঢেকুরের শব্দে আশপাশের মানুষ বিরক্ত হওয়ার থেকে অবাকই হতেন বেশি। এটি কিম্বারলিকে আনন্দ দিত। তাই, তিনি আরো জোরে ঢেকুর তুলতে চাইতেন। এক সময় কিম্বারলি যখন জানতে পারলেন, ঢেকুর দিয়েও বিশ্বরেকর্ড সম্ভব, তখন তিনি এর জন্য প্রস্তুতি শুরু করেন। বিশেষ করে ঝালযুক্ত খাবার, সোডা ও অ্যালকোহল খেয়ে নিজেকে প্রস্তুত করতে থাকেন।

যদিও কিম্বারলি বলেছেন, ‘খানিকটা পানি খেয়েও তিনি উচ্চ শব্দে ঢেকুর তুলতে পারেন।’

অবশেষে গেল এপ্রিলে তিনি সাফল্য পান। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস কর্তৃপক্ষের সামনে, মাইক্রোফোনের থেকে প্রয়োজনীয় দূরত্বে দাঁড়িয়ে (দুই দশমিক পাঁচ মিটার) জোরে ঝাঁকুনি দিয়ে ঢেকুরটি তোলেন, যা ১৪ বছরের রেকর্ড ভেঙে দেয়।    

এর আগে নারীদের মধ্যে সবচেয়ে জোরে ঢেকুরের রেকর্ডটি ছিল ইতালির এলিসা ক্যাগনোনির। তার ঢেকুরের শব্দের মাত্রা ছিল ১০৭ ডেসিবল।

ঢেকুরের আওয়াজে পুরুষের রেকর্ডটি অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক নেভিল শার্পের দখলে। ২০২১ সালের লিপিবদ্ধ তথ্য অনুযায়ী, তার ঢেকুরের শব্দের মাত্রা ছিল ১১২ দশমিক সাত ডেসিবল।

সিএন/এমএ

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন