সোমবার, ২০ মে ২০২৪

শিরোনাম

নিউইয়র্কের বাজেটের প্রাথমিক রূপরেখা ঘোষণা

বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪

প্রিন্ট করুন

ইফতেখার ইসলাম: নিউইয়র্ক রাজ্যের আগামী ২০২৫ অর্থ বছরের জন্য ২৩৭ বিলিয়ন ডলারের প্রাথমিক বাজেট কাঠামো ঘোষণা করেছেন গভর্নর ক্যাথি হোকুল। এই বাজেটে রাজ্যের আবাসন, অভিবাসী, অবৈধ গাঁজার দোকান, শিক্ষা, জননিরাপত্তা এবং বিচার ব্যবস্থার ওপর জোর দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) আলবেনিতে ডেমোক্র্যাটিক আইন প্রণেতাদের মধ্যে তুমুল আলোচনার পর এই বাজেট কাঠামো ঘোষণা করা হয়। যা গত ১ এপ্রিল উপস্থাপন করা হয়েছিলো। এই বাজেট জানুয়ারিতে আইনসভা অধিবেশনের শুরুতে গভর্নর প্রস্তাবিত ২৩৩ বিলিয়ন ডলার থেকে বেশি।

হোকুল বলেন, এটি বাজেটের একটি প্রাথমিক ধারণা। আমাদের এই বাজেটের চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছাতে আরও একটু সময় লাগবে। তবে ঘোষিত এই কাঠামোর বাইরে কিছু ঘটার সম্ভাবনা কম বলেও ইঙ্গিত করেছেন তিনি। আমাদের প্রত্যেকেই দৃঢ় বিশ্বাসের সাথে টেবিলে এসেছিলাম। আমরা আলোচনার মাধ্যমে রাষ্ট্রের স্বার্থে অনেক বিষয়ে একমত পোষণ করেছি। তবে আইনপ্রণেতারা বলছেন, ‘তারা এখনও সবকিছু সম্পন্ন করেননি’।

কুইন্স ডেমোক্র্যাট সেন. মাইকেল জিয়ানারিস বলেন, গভর্নর বলেছেন ‘এটি বাজেটের প্রাথমিক কাঠামো’। এর অর্থ যাই হোক না কেন, আমরা কাছাকাছি আছি। আমরা আশাবাদী শীঘ্রই এটি শেষ করতে পারবো। আমরা প্রায় ৯৫ ভাগ কাজ সম্পন্ন করেছি বাকি ৫ শতাংশ নিয়ে এখনও আলোচনা চলছে।

আবাসন খাতে থাকছে বড় ‘চমক’

সম্প্রতি চরম সংকটের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে নিউইয়র্কের আবাসন খাত। অতিরিক্ত অভিবাসী ও গৃহহীনের কারণে এই সংকট তীব্র আকার ধারণ করেছে। এর জন্য কম সমালোচিতও হতে হয়নি কর্তৃপক্ষকে। আর এই সংকট থেকে উত্তোরণের জন্য প্রণোদনা, ভাড়াটে সুরক্ষা আইনসহ বিভিন্ন বিষয় অন্তর্ভুক্ত হয়েছে নতুন বাজেটে। গভর্নর হোচুল বলেছেন, ‘এই বাজেটে তিন প্রজন্মের মধ্যে সবচেয়ে ব্যাপক আবাসন নীতি অন্তর্ভুক্ত করা হবে’।

আবাসন খাত সমৃদ্ধ করতে রাজ্যব্যাপী উদ্যোগের মধ্যে রয়েছে—আবাসন নির্মাণের জন্য নতুন কর প্রণোদনা; দলিল চুরির বিরুদ্ধে সুরক্ষা এবং রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন সম্পত্তিতে ১৫ হাজার নতুন আবাসন ইউনিট তৈরির জন্য ৫শ মিলিয়ন ডলার প্রদান।

গভর্নর বলেন, নিউইয়র্ক সিটি নতুন করে আবাসন তৈরির জন্য স্থানীয় নিয়ন্ত্রণ পাবে এবং ৪২১-এ ট্যাক্স অ্যাবাটমেন্ট প্রোগ্রামটি ৬ বছরের জন্য বাড়ানো হবে। অব্যবহৃত অফিস স্থানকে সাশ্রয়ী মূল্যের আবাসনে রূপান্তর করা সহজ করে তোলা হবে; ২০১৯ সাল থেকে খালি থাকা ইউনিটগুলোর সম্ভাব্যতা যাচাই করা হবে এবং ভাড়া বৃদ্ধি থেকে রক্ষা করার জন্য একটি নতুন আইন প্রতিষ্ঠা করা হবে।

এদিকে এত এত উদ্যেগের পরেও সন্তুষ্ট নন সিটির ভাড়াটে এবং রিয়েল এস্টেট প্রতিষ্ঠানগুলো। নিউইয়র্কের রিয়েল এস্টেট বোর্ডের প্রেসিডেন্ট জেমস হুইলান বলেন, আমরা নিশ্চিত এই প্যাকেজটি শহরের আবাসন চাহিদা পূরণে ব্যার্থ হবে এবং আগামী বছরগুলোতে ভাড়া হাউজিং বাজারকে একটি দৃঢ় ভিত্তিতে পুনঃমূল্যায়ন করতে হবে।

টেন্যান্ট অ্যাডভোকেসি গ্রুপ হাউজিং জাস্টিস ফর অল-এর ডিরেক্টর সিইএ ওয়েভার আবাসন চুক্তিকে ‘জাল’ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি বলেন, আবাসন চুক্তির এই ছলনা আবাসনে আরও সাশ্রয়ী করতে এবং নিউইয়র্ক বাসীদের তাদের বাড়িতে রাখার জন্য একেবারে কিছুই করবে না। এটি রিয়েল এস্টেট শিল্পের জন্য একটি বিশাল উপহার ছাড়া আর কিছুই নয়। পুরাতন অফিস স্পেসকে হাউজিং এবং বেসমেন্ট অ্যাপার্টমেন্টের জন্য একটি পাইলট প্রোগ্রাম পরিণত করার দিকে অর্থ নষ্ট হবে বলে মনে করছেন তিনি।

জননিরাপত্তা

আবাসনের পাশাপাশি জনসাধারণের নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে বাজেট প্রণয়নে বাড়তি নজর দিয়েছে রাজ্য প্রশাসন। বাজেটে অপরাধের সংখ্যার সম্প্রসারণ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। যেখানে নতুন কিছু অপরাধকে ঘৃণামূলক অপরাধ হিসাবে অভিযুক্ত করা যেতে পারে। এছাড়া কমিউনিটি সুরক্ষায় ধর্মীয় বিদ্যালয়, প্রতিষ্ঠান এবং অন্যান্য স্থানে ৩৫ মিলিয়ন বিনিয়োগ ধরা হয়।

আগামী বাজেটে রাজ্যের নিম্ন কিংবা অস্থায়ী শ্রমিকদের সুরক্ষায় নজর দেওয়া হয়েছে। শ্রমিকদের উপর হামলাকারী অপরাধীদের শাস্তি বাড়ানোর সিদ্ধান্তে একমত হয়েছেন আইনপ্রণেতারা। এছাড়া চোরাইকৃত পণ্য অনলাইনে বিক্রিকে ‘বেআিইনি’ ঘোষণা করে এই খাত সংশ্লিষ্টদের জন্য ৪০ মিলিয়ন ডলার বরাদ্দ ধরা হয়েছে। নিরাপত্তা সংস্থানগুলোতে বিনিয়োগ করার জন্য ব্যবসার মালিকদের জন্য ৩ হাজার ডলার ট্যাক্স ক্রেডিট দেওয়া হবে।

বাজেটে অফিস অফ ক্যানাবিস ম্যানেজমেন্টকে (ওসিএম) পুরো এক বছরের জন্য ব্যবসায় তালা লাগানোর অনুমোদন দিয়ে অবৈধ গাঁজার দোকান বন্ধ করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। স্থানীয় প্রশাসনকে এই আদেশ কার্যকর করার জন্য আইন পাস করার অনুমতিও দেওয়া হয়েছে। এছাড়া লাইসেন্স ছাড়া গাঁজা বিক্রিকারী খুচরা বিক্রেতাদের কাছে জেনেশুনে ভাড়া নেওয়া বাড়িওয়ালাদের জন্যও জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে।

নিউইয়র্ক তথা পুরো যুক্তরাষ্ট্রের এক বড় সমস্যা বন্দুক হামলা। প্রতিবছর অসংখ্য মানুষ মারা যান বন্দুক সহিংসতায়। আর এই অপরাধ কমাতে আগামী বাজেটে বিশেষ নজর দিয়েছে সিটি প্রশাসন। বন্দুক সহিংসতা কমাতে এবং প্রতিরোধে নিউইয়র্কের প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে ৩৪৭ মিলিয়ন এবং গার্হস্থ্য সহিংসতার অপরাধ প্রতিরোধ ও বিচারের জন্য ৩৫.৭ মিলিয়ন ডলার বরাদ্দ ধরা হয়েছে।

আগামী বাজেটে প্যারোলে থাকা ব্যক্তিদের আরও নিবিড় তত্ত্বাবধান; ট্রানজিশনাল হাউজিং সুযোগ সম্প্রসারণ; সমস্ত রাজ্য কারাগারে কলেজ প্রোগ্রামিং সম্প্রসারণের মাধ্যমে কাজে ফেরা এবং নিজের সংশোধনের জন্য আসা যাওয়া করতে ৭.১ মিলিয়ন ডলার বরাদ্দ ধরা হয়েছে।

শিক্ষায় রেকর্ড বরাদ্দ

নিউইয়র্ক সিটির মেয়র এরিক অ্যাডামসকে শহরের স্কুলগুলোর ওপর নিয়ন্ত্রণ অব্যাহত রাখার বিষয়ে ইতিবাচক রয়েছেন গভর্নর ক্যাথি হোচুল। যদিও আইনসভার নেতারা বিষয়টি বাজেট থেকে আলাদা রাখতে এবং পরবর্তী অধিবেশনে এটি নিয়ে আলোচনা মোকাবেলা করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু গভর্নর অ্যাডামসকে আরও ২ বছরের নিয়ন্ত্রণ দেওয়ার পথে রয়েছেন বলে মনে হচ্ছে।

গ্রেড ১২ পর্যন্ত বিদ্যালয়গুলোর জন্য এবারের বাজেটে ফাউন্ডেশন এইড ২৪.৯ বিলিয়নসহ মোট স্কুল সহায়তায় রেকর্ড ৩৫.৯ বিলিয়ন ধরা হয়েছে। এছাড়া বিজ্ঞানভিত্তিক পাঠের ওপর বাড়তি জোর দেওয়া হয়েছে বাজেটে। এবার উচ্চ শিক্ষার ক্ষেত্রেও পরিবর্তন আসছে। শিক্ষাদান সহায়তার জন্য ন্যূনতম পুরস্কার ৫শ থেকে ১ হাজার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাবে। রাজ্যের ট্যাপ অনুদানের জন্য যোগ্যতা ৮০ হাজার বা তার কম উপার্জনকারী পরিবার থেকে ১ লক্ষ ২৫ হাজার ডলার বা তার কম করা হচ্ছে এবারের বাজেটে।

আর কিছু খাত

অভিবাসীদের স্বল্পমেয়াদী আশ্রয় পরিষেবা, আইনি সহায়তা এবং আরও অনেক কিছু সহায়তা বরাদ্দ ধরা হয়েছে। গভর্নর এবং আইনসভা নিউইয়র্ক সিটির অভিবাসী সংকট মোকাবেলায় সহায়তা করার জন্য ২.৪ বিলিয়ন ডলার দিতে সম্মত হয়েছেন। যার মধ্যে ৫ লাখ ডলার রাষ্ট্রীয় রিজার্ভ থেকে ধরা হয়েছে।

মেডিকেড ব্যয়ের যাচাই-বাছাই এখনও রয়ে গেছে। তবে হোচুল সোমবার বলেছেন যে ভোক্তা নির্দেশিত ব্যক্তিগত সহায়তা প্রোগ্রামটি একটি রাজ্যের আর্থিক মধ্যস্থতাকারী পরিবর্তিত হবে। তিনি বলেছিলেন রাজ্যে বছরে ৫শ মিলিয়ন সাশ্রয় করবে।

গর্ভবতী মায়েদের জন্য প্রসব-পূর্ব ছুটির প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে এবারের বাজেটে। এম্পায়ার এআই কনসোর্টিয়ামের জন্য ২৭৫ মিলিয়ন এবং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বিকাশে রাষ্ট্রের পদচিহ্ন তৈরি করার জন্য ব্যক্তিগত ও বিশ্ববিদ্যালয়ের তহবিলে ১২৫ মিলিয়ন রাখা হয়েছে।

এমটিএ’র জন্য ৭.৯ বিলিয়ন অপারেটিং সহায়তা, আপস্টেট ট্রানজিট সিস্টেমের জন্য ৩৩৩ মিলিয়ন এবং নন-এমটিএ ডাউনস্টেট সিস্টেমের জন্য ৫৫১ মিলিয়নসহ রাজ্যব্যাপী গণ ট্রানজিট সিস্টেমগুলোতে ৫.৪ শতাংশ বাড়িয়ে সমালোচনামূলক বরাদ্দ ধরা হয়েছে।

বিশুদ্ধ পানির জন্য ৫শ মিলিয়ন, পরিবেশ সুরক্ষা তহবিলের জন্য ৪শ মিলিয়ন এবং ২০৩৩ সালের মধ্যে ২৫ মিলিয়ন গাছ লাগানোর লক্ষ্যকে সামনে রেখে ৪৭ মিলিয়নের রেকর্ড পরিবেশগত বরাদ্দ রাখা হয়েছে ২০২৫ সালের বাজেটে।

এছাড়া দুর্দশাগ্রস্ত হাসপাতালগুলোকে সহায়তার জন্য ৩.৯ বিলিয়নের আগের বরাদ্দ এবং নতুন স্বাস্থ্যসেবা পরিকাঠামো তৈরি করতে ২০ বিলিয়ন বহু-বছরের বরাদ্দ রাখা হয়েছে। বয়স্ক ও গর্ভবতী নিউইয়র্কবাসীদের জন্য মেডিকেয়ার কভারেজ প্রসারিত করা এবং হোম কেয়ার কর্মীদের ন্যূনতম মজুরি বৃদ্ধি করার বিষয় উঠে এসেছে এবারের বাজেটে।

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন