শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪

শিরোনাম

নিউইয়র্কের স্টেডিয়ামে পুলিশের স্নাইপার!

বুধবার, জুন ৫, ২০২৪

প্রিন্ট করুন

নিউইয়র্ক সিটি, যুক্তরাষ্ট্র: যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সোমবার (৩ জুন) দিবাগত রাতে হয়ে গেল চলমান টি-২০ বিশ্বকাপের শ্রীলঙ্কা ও দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ম্যাচ। এটি এ স্টেডিয়ামেও বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ ছিল। ৩৪ হাজর দর্শক ধারণক্ষমতার এ স্টেডিয়ামে নিরাপত্তার খাতিরে স্নাইপার নিযুক্ত করেছিল নাসাউ কাউন্টি পুলিশ।

জঙ্গি হামলার আশঙ্কা থেকেই এ স্টেডিয়ামে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্য দিয়ে চলমান টি-২০ বিশ্বকাপের ম্যাচ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা জানিয়েছে স্টেডিয়াম কর্তৃপক্ষ ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা আইসিসি।

বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার কয়েক দিন পূর্বে জঙ্গিগোষ্ঠী আইসিস এ স্টেডিয়ামে হামলার হুমকি দেয়। বন্দুক নিয়ে হুডি পরা এক ব্যক্তির ছবি-সংবলিত একটি পোস্টার প্রকাশ করে গোষ্ঠীটি। পোস্টারে লেখা ছিল, ‘আপনি ম্যাচের জন্য অপেক্ষা করছেন… এবং আমরা আপনার জন্য অপেক্ষা করছি।’

মূলত আগামী ৯ জুন এ স্টেডিয়ামে ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে পাকিস্তান। ওই ম্যাচে হামলার হুমকি দিয়ে পোস্টার প্রকাশ করে আইসিস। পোস্টারে ড্রোন ও ডিনামাইটও দেখা গেছে।

আইসিসের হুমকির পর নড়েচেড়ে বসেছে নাসাউ কাউন্টি পুলিশ বিভাগ। ৩-৯ জুনের মধ্যে লং আইল্যান্ডে অনুষ্ঠিত সব ম্যাচের জন্যই ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে তারা।

পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, স্টেডিয়ামগুলোতে সোয়াট টিম কাজ করবে। তাদের সাথে থাকবে বিষেশায়িত স্নাইপাররা। এছাড়া, সোদা পোশাকে পুলিশ কর্মকর্তারাও মাঠের ভেতরে অবস্থান করবেন।

এ ব্যাপারে আইসিসির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘টুর্নামেন্ট চলাকালে প্রত্যেকের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার। এটি বাস্তবায়ন করতে আমাদের ব্যাপক ও শক্তিশালী নিরাপত্তা পরিকল্পনা রয়েছে। আয়োজক দেশের (নিরাপত্তা) কর্তৃপক্ষের সাথে সমন্বয় করে আমরা কাজ করছি।’

ড্রোন হামলার আশঙ্কায় মাঠটির আশপাশের পার্কের জায়গা ম্যাচের দিনগুলোতে জনসাধারণের জন্য বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে নাসাউ কাউন্টি পুলিশ। এছাড়া, ম্যাচের দিন স্টেডিয়ামে ঢুকার পূর্বে দর্শকদের ব্যাগে তল্লাশি চালানো করা হবে ও বিমানবন্দরের মত স্ক্যানারের ভেতর দিয়ে তাদের গ্যালারিতে ঢুকতে হবে।

সিএন/আলী

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন