রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪

শিরোনাম

নিউইয়র্কের ‘বিশেষ’ কিছু স্থানে নিষিদ্ধ হচ্ছে বন্দুক বহন

বৃহস্পতিবার, জুন ৩০, ২০২২

প্রিন্ট করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টে সাধারণ জনগণকে বন্দুক বহনের অধিকার দিয়ে রায় দেওয়ার মাধ্যমে নিউইয়র্কবাসী শতাব্দীরও বেশি সময় পরে প্রথমবারের মতো ব্যক্তিগত সুরক্ষার জন্য বাড়ির বাইরে বন্দুক বহন করার লাইসেন্স পেতে সক্ষম হবে। তবে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে বন্দুক বহনের ক্ষেত্রে নতুন বিল পাস করতে যাচ্ছে ডেমোক্রেটিক নেতৃত্বাধীন আইনসভা।

গভর্নর ক্যাথি হোচুল বলেছেন, তিনি এবং আইন প্রণেতারা একটি বন্দুক নিয়ন্ত্রণ বিলের বিস্তৃত স্ট্রোকের বিষয়ে একমত হয়েছেন। যা বৃহস্পতিবার (২৯ জুন) পাস করতে প্রস্তুত। এই বিলের আওতায় নিউইয়র্কে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে মালিকের অনুমতি না থাকলে আগ্নেয়াস্ত্র বহন করা নিষিদ্ধ করা হবে।

তিনি বলেন, আগে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বা বিশেষ প্রয়োজনে শহরের মানুষ বন্দুক বহন করতে পারতো। তবে সুপ্রিম কোর্টের রায়ে এখন সাধারণ মানুষও বন্দুক বহন করতে পারবে। আর এর মাধ্যমে যাতে ব্যবসায়ীদের কোন ক্ষতি না হয় তার জন্য এই বিল পাস করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, যদি কোন মালিক তার দোকান বা রেস্টুরেন্টে বন্দুক বহনের অনুমতি না দেন তবে কেউ তা নিয়ে প্রবেশ করতে পারবে না। এছাড়া বন্দুক ব্যবহারের জন্য জনগণকে কিছু শর্তও মানতে হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান ছাড়াও আরো বেশ কিছু স্থানে বন্দুক ব্যবহারে বিধিনিষেধ আরোপের আলোচনা চলছে। ক্যাথি হোকুলের মতে, তারা কিছু সংবেদনশীল স্থানের তালিকা তৈরি করছেন। যার মধ্যে— স্কুল,কলেজ,হাসপাতাল,সরকারি ভবন সংলগ্ন এলাকায় বন্দুক ব্যবহার নিষিদ্ধ করার প্রক্রিয়া চলছে।

সুপ্রিম কোর্টের রায়ে বলা হয়েছে, রাজ্যগুলি নির্দিষ্ট স্থানে আগ্নেয়াস্ত্র নিষিদ্ধ করতে পারে। তবে করে ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় বন্দুক নিষিদ্ধ করা অসাংবিধানিক হবে। সে হিসেবে নতুন এই বন্দুক বিলের সাথে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের কোন সাংঘর্ষিকতাও নেই।

হোচুল আরো বলেন, তিনি এখনও আইন প্রণেতাদের সাথে বন্দুক নিয়ন্ত্রণ আইনের সুনির্দিষ্ট তথ্য বের করার জন্য কাজ করছেন। যার মধ্যে বিপজ্জনক আচরণের ইতিহাস সহ লোকেদের হ্যান্ডগান পারমিট পেতে বাধা দেওয়ার প্রস্তাব রয়েছে।

আইআই/সিএন

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন