রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪

শিরোনাম

ন্যাটো সম্প্রসারণে পুতিনকে ‘দায়ী’ করলেন হিলারি

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

ওয়াশিংটন ডিসি, যুক্তরাষ্ট্র: রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে সামরিক জোট ন্যাটোর সম্প্রসারণ ইস্যুতে খোঁচা দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ফার্স্ট লেডি ও পররাষ্ট্র মন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন। রুশ নেতাকে উদ্দেশ করে তিনি বলেছেন, ‘খুব খারাপ, ভ্লাদিমির। আপনিই বিষয়টিকে নিজের ওপর টেনে এনেছেন।’

তার এই কথার মাধ্যমে হিলারি মূলত ন্যাটোর সম্প্রসারণ ও ইউক্রেনে যুক্তরাষ্ট্রের অব্যাহত সহায়তাকে একপাশে রাখার দায় পুতিনের ওপর চাপিয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৬ সেপ্টেম্বর) নিজের অফিসিয়াল প্রতিকৃতি উন্মোচনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্টে যান হিলারি ক্লিনটন। সেখানে দেয়া বক্তব্যে হিলারি পুতিনকে খোঁচা দেয়ার পাশাপাশি সাবেক রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নীতিরও সমালোচনা করেন। ২০১৬ সালের যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পের কাছেই পরাজিত হয়েছিলেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ফার্স্ট লেডি ইঙ্গিত দেন, ট্রাম্প তার শাসনামলে যুক্তরাষ্ট্রের মিত্রদের বিচ্ছিন্ন করার যে কাজ করেছিলেন, সেটির কারণে রাশিয়ার ইউক্রেন আক্রমণ প্রতিহত করার জন্য কিয়েভের পক্ষে সমর্থন জোগাড়ে যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন থাকতে পারে।

‘আমরা আমাদের মিত্র ও আমাদের বন্ধুদের সাথে বন্ধুত্বের অনেক সেতু পুড়িয়ে দিয়েছি, আর তাই লোকেরা এই বিষয়ে সন্দেহ করতেই পারে।’ বলেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী।

হিলারি ক্লিনটন বলেন, ‘বৈদেশিক নীতি পুনঃস্থাপন করা … যা আসলে মানুষকে আমাদের কাছে নিয়ে আসে, তাদের দূরে ঠেলে দেয় না, এটি অত্যন্ত কঠিন বলে মনে করা হত এবং প্রকৃতপক্ষে এটি আসলেই কঠিন, কিন্তু (ট্রাম্পের আমলে) সেটিই সম্পন্ন করা হয়েছিল।’

এ সময় যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেনকে ধন্যবাদও জানান হিলারি। তার মতে, বিশ্বজুড়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান পুনরুদ্ধারে সহায়তা করছেন ব্লিংকেন।

হিলারি ক্লিনটন বলেন, ‘সহকর্মী ডেমোক্র্যাট যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ওবামা প্রশাসনের অনেক অগ্রাধিকারমূলক নীতি অনুসরণ করে চলেছেন।’ মূলত প্রেসিডেন্ট বাইডেন ছিলেন ওবামা প্রশাসনের শীর্ষ মার্কিন কূটনীতিক ও তিনি বারাক ওবামার ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

তিনি বলেন, ‘ইউক্রেনে গণতন্ত্র রক্ষা করা, ন্যাটোর সম্প্রসারণ করা- এটি এখন এক বিষয় হয়ে উঠেছে। খুব খারাপ ভ্লাদিমির, আপনি এটি নিজেই সামনে নিয়ে এসেছেন।’

হিলারি আরো বলেন, ‘আমরা সব সময় বলেছি, মানুষকে ন্যাটোতে যোগ দিতে বাধ্য করা হয় না। বরং, মানুষ নিজেই সিদ্ধান্ত নেয় ও ন্যাটোতে যোগ দিতে চায়।’

সিএন/এমএ

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন