বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪

শিরোনাম

পুরো দিন ফুরফুরে থাকতে ভোর শুরু করার উপায়

সোমবার, অক্টোবর ১৬, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

লাইফস্টাইল প্রতিবেদক: খুব ভাল হল ঘুম। কিন্তু, ভোরে উঠেই আপনার মেজাজ বিগড়ে গেল কোন কারণে। তাই, এমন কিছু এড়িয়ে চলুন, যেন সুন্দর ভোরটি নষ্ট না হয়।

নিজেকে নিস্তব্ধ রাখা: ঘুম থেকে উঠেই রাজ্যের কাজে নেমে পড়বেন না। উঠে আগে নিজেকে সময় দিন। ঠান্ডা রাখুন মাথা। নিজেকে সাইলেন্ট রাখুন। নামাজে বসতে পারেন। প্রার্থনা করে নিন। সকালে উঠে ইয়োগা করা স্বাস্থ্যের জন্য খুব ভাল। বেশি না দশ মিনিট সময় নিয়ে ধ্যান করতে পারেন। এভাবে দিনের শুরুটা হলে চিন্তার জায়গা পরিষ্কার হবে।

একান্তে কথা বলা: যারা যার যার অবস্থানে সফল, তারা নিজের সাথে কথা বলে নিয়মিত। তাই, এই কথা বলার সময় হোক সকাল বেলাতেই। আপনি নিজেকে প্রশ্ন করতে পারেন। আপনার চাওয়া কিংবা নিজেকে কোথায় বসাতে চান। অর্থাৎ, আপনি কিভাবে নিজেকে সফল করতে চান। এই ব্যাপারটি অনুসরণ করলে নিজের সম্পর্কে জ্ঞান বাড়বে। নিজেকে বুঝলে জগৎ জয় করা যায়।

কল্পনা: আপনার কল্পনার পৃথিবী বিস্তার ঘটাতে হবে। আগে কল্পনা করুন, তারপর তা বাস্তবে রুপ দিতে সহজ হবে। যে মানুষ আগে কল্পনা করে মনছবি এঁকে নেয় তার লক্ষ্য দ্রুত পুরণ হয়। আত্মবিশ্বাস বেড়ে যায় শত গুণ। তাই, সকালে উঠে ভাবুন আর মনছবি আঁকুন। আপনি আসলে জীবনে কী করতে চান।

বই পড়া: সফল কিংবা বিখ্যাত মানুষেরা সকালে উঠে বই পড়ে। বিল গেটনের মত সফল মানুষেরা বই পড়ার মধ্য দিয়ে তাদের সকাল শুরু করেন। বই পড়ার মধ্য দিয়ে আমরা আমাদের মনকে সুস্থ ও আনন্দিত রাখতে পারি। বই পড়ার অভ্যাস মানসিক চাপ কমায়, মনোযোগ বৃদ্ধি করে। গবেষকের মতে, ‘মাত্র ছয় মিনিটের জন্য বই পড়লে স্ট্রেস লেভেল ৬৮ শতাংশ পর্যন্ত কমে যায়, যেখানে হাঁটায় ৪২ শতাংশ, কফি পান করলে ৫৪ শতাংশ, গান শুনলে ৬১ শতাংশ স্ট্রেস লেভেল কমে যায়।

ব্যায়াম: ভোরে ব্যায়াম করলে হার্ট, মস্তিষ্ক কিংবা শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ প্রতঙ্গ সুস্থ থাকে। দেহে রক্তের সঞ্চালন বেড়ে যায়। এতে পুরো দিনের জন্য শক্তি সঞ্চয় হয়। মস্তিষ্কে বেশি পরিমাণে অক্সিজেন সরবরাহের ফলে ক্লান্তিহীন ও সুন্দরভাবে কাজ করার জন্য মস্তিষ্ককে তৈরি করে দেয়, যা আপনাকে একটি সুন্দর দিন শুরু করতে সাহায্য করবে। বিশেষজ্ঞদের মতে, সকালে ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ বেশি ভাল।

সিএন/এমএ

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন