বুধবার, ২২ মে ২০২৪

শিরোনাম

বাজে শটকে দায়ী করলেন সাকিব

শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ৮, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

ঢাকা: লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে এশিয়া কাপের সুপার ফোরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের কাছে হারের জন্য বাজে ব্যাটিংকে দায়ী করলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। একই সাথে পাকিস্তানের বোলিং আক্রমণের প্রশংসা করেছেন সাকিব। ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে গতিময় পেসের সাথে লাইন লেন্থ বজায় রেখে বোলিং করেছে পাকিস্তানের বোলাররা।

বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সাকিব বলেন, ‘আমরা শুরুতেই হেরে গেছি, তারা সত্যিই খুব ভাল বোলিং করেছে ও আমরা কিছু সাধারণ মানের শট খেলেছি। এই ধরনের উইকেটে দশ ওভারের মধ্যে আমাদের চার উইকেট হারানো উচিত হয়নি।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের খুব ভাল জুটি হয়েছিল। আমাদের আরও ৭-৮ ওভার খেলা উচিত ছিল। আমি আউট হওয়ার পর আর কোন জুটি হয়নি। এই ধরনের উইকেটে খুবই বাজে ব্যাটিং পারফরমেন্স করেছি আমরা।’

মিড উইকেটে ক্যাচ দিয়ে শুরুতে আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান মেহেদি হাসান মিরাজ আউট হলেও দারুন কিছু শটে দলকে সঠিক পথে রেখেছিলেন লিটন দাস। মোহাম্মদ নাইমকে নিয়ে জুটি গড়ার চেষ্টা করেন লিটন। কিন্তু, আফ্রিদির লাফিয়ে উঠা বল সামলাতে না পেরে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন লিটন। নাসিম শাহ-আফ্রিদি ও হারিস রউফের তোপে নয় দশমিক এক ওভারে ৪৭ রানে চার উইকেট হারিয়ে বসে বাংলাদেশ।
এরপর পঞ্চম উইকেটে ১০০ রানের জুটি গড়ে বাংলাদেশকে লজ্জার হাত থেকে বাঁচান সাকিব ও মুশফিক। সাকিব ৫৩ ও মুশফিক সর্বোচ্চ ৬৪ রান করেন। কিন্তু, উইকেটে সেট হয়েও বাজে শট খেলে বিদায় নেন দুই সিনিয়র ক্রিকেটার। এতে ৩৮ দশমিক চার ওভারে ১৯৩ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। ১৯ রানে চার উইকেট নিয়ে পাকিস্তানের সেরা বোলার রউফ। জবাবে ওপেনার ইমাম উল হক ও মোহাম্মদ রিজওয়ানের জোড়া হাফ-সেঞ্চুরিতে ৩৯ দশমিক তিন ওভারে জয়ের স্বাদ নেয় পাকিস্তান। ইমাম ৭৮ ও রিজওয়ান অপরাজিত ৬৩ রান করেন।

সাকিব বলেন, ‘পৃথিবীর এক নম্বর দল পাকিস্তান। তাদের বিশ্ব মানের সেরা ফ্রন্টলাইন বোলার আছে। বোলাররা ভাল করলে ব্যাটারদের কাজটা সহজ হয়ে যায়।’

একই সাথে নিজ দলের বোলারদেরও প্রশংসা করেছেন সাকিব। পুঁজি কম থাকা সত্বেও কিছু সময় পাকিস্তানের ব্যাটারদের চাপে ফেলেছিলো বোলাররা।

সাকিব বলেন, ‘আমরা বোলিংয়ে ভাল করেছি। এই মুর্হূতে ব্যাটিং ভাল ও খারাপ মিলিয়ে হচ্ছে। আমাদের ধারাবাহিক হতে হবে ও আমরা সেটাই করার চেষ্টা করব। আমাদের তিন পেসার দারুন বল করেছে। গেল কয়েক বছর ধরে ভাল বোলিং করছে তারা।’

তিনি আরো বলেন, ‘দুর্ভাগ্যবশত, আমরা উইকেট শিকার করতে পারিনি। এটি এমন উইকেট ছিল না, যেখানে ব্যাটাররা ভুল না করলে আপনি উইকেট পেতে পারেন। আমি এলপিএল (শ্রীলংকায়) খেলাকালে  উইকেট ধীর গতির ছিল। যদি এমন হয়ে থাকে, তাহলে সেটি আমাদের জন্য ভাল হবে। আশা করছি, কলম্বোতে আমরা ভাল খেলব।’

আগামী শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর) সুপার ফোরে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলংকার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। জয়ের ধারায় ফিরে আসার স্বপ্ন দেখছেন সাকিব। গ্রুপ পর্বে শ্রীলংকার কাছে পাঁচ উইকেটে হেরেছিল বাংলাদেশ।

সাকিব বলেন, ‘এ ম্যাচকে গুরুত্বসহকারে নিতে হবে ও পরের ম্যাচের জন্য এগিয়ে যেতে হবে। কারণ, খুব তাড়াতাড়ি আমাদের আরো একটি ম্যাচ আছে।’

সিএন/এমএ

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন