শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

শিরোনাম

মানুষের ভোট ও ভাতের অধিকার আমরা দিয়েছি— শেখ হাসিনা

শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ১০টা হুন্ডা, ২০টা গুন্ডা, নির্বাচন ঠান্ডা— সেই রকম নির্বাচন আমরা পরিবর্তন করেছি। বিএনপি এভাবে ভোট করে ক্ষমতায় থাকতে পারেনি। আমরা দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়েছি। মানুষের মাঝে ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছি। মানুষের ভাত ও ভোটের অধিকার আমরা নিশ্চিত করেছি।

নিউইয়র্ক সময় শুক্রবার (সেপ্টেম্বর ২২) নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদরদপ্তরে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৮তম অধিবেশনে ভাষণ শেষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্যাংশান-নিষেধাজ্ঞা, এসবে কোন ভয় নেই। আমাদের জন্য আমাদের দেশ আছে। বাংলাদেশে আমরা সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করেছি। আজকে যারা নিষেধাজ্ঞা স্যাংশানের কথা বলছেন তাদের দেশেই তো ঠিক নেই।

শেখ হাসিনা বিএনপির শসনামলের সমালোচনা করে বলেন, দেশে আর কেউ অবৈধভাবে সংবিধান লঙ্ঘন করে ক্ষমতায় আসতে পারবে না। মানুষ সবকিছু জানে। মানুষ ভোটের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ সরকারকে ক্ষমতায়ে এনেছে, ভবিষ্যতেও আনবে।

প্রধানমন্ত্রী নিজের ব্যক্তিজীবনে নিয়ম মেনে চলার বিষয় তুলে ধরে বলেন, ৪-৫ ঘন্টা ঘুমালেই যথেষ্ট। আমি তো এর বেশি ঘুমাই না। বাকিটা সময় কাজ করি। সকালে ঘুম থেকে উঠে নামাজ পড়ি তারপর নাস্তা করতে বসে যাবতীয় ফাইল পত্র দেখি। এরপর সারাদিন কাজে কাজে ব্যস্ত থাকতে হয়।

রোহিঙ্গাদের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অনেকে রোহিঙ্গাদের সোনার ডিম পাড়া হাসের মতো মনে করেন। তাই তারা চায় না রোহিঙ্গারা নিজ দেশে ফিরে যাক। তবে আমরা লক্ষ্য করেছি রোহিঙ্গারা বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে যাচ্ছে। তারাও নিজ দেশে ফিরে যেতে চাই।

নারীর ক্ষমতায়ন প্রসঙ্গ টেনে বাংলাদেশে ভবিষ্যতে সায়মা ওয়াজেদ নেতৃত্বে আসার সম্ভাবনা আছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে শেখ হাসিনা বলেন, না সেই সম্ভাবনা কম! কারণ জনগণই তাদের সরকার নির্বাচন করবে। আমরা আমাদের সন্তানদের বলেছি তাদের জন্য কিছু রেখে যেতে পারবো না। তাদের আমরা শিক্ষিত করে গড়ে তুলেছি। বাকিটা তারা যেভাবে যা অর্জন করতে পারেন আর জনগণ যাকে চাইবে সেই ক্ষমতায় আসবে।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী সাংবাদিকদের আরও বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন