শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪

শিরোনাম

যুক্তরাষ্ট্রের ক্রিকেট লিগে নাম লেখালেন প্যাট কামিন্স

বুধবার, জুন ৫, ২০২৪

প্রিন্ট করুন

প্রথম আসরেই সাড়া জাগিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লিগ ক্রিকেট (এমএলসি)। টুর্নামেন্টটির সম্ভাবনা দেখে আইসিসি সম্প্রতি এ টুর্নামেন্টের খেলাগুলোকে দিয়েছে লিস্ট ‘এ’ ম্যাচের মর্যাদা। দ্বিতীয় আসরের পূর্বে একের পর এক তারকা যোগ দিচ্ছেন এমএলসিতে। যে তালিকায় এবার যুক্ত হয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের এক মহারথীর নাম। অস্ট্রেলিয়াকে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ও ওয়ানডে বিশ্বকাপ জেতানো অধিনায়ক প্যাট কামিন্স যোগ দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের এ ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগে।

এমএলসির দল স্যান ফ্র্যান্সিসকো ইউনিকর্নে যোগ দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট ও ওয়ানডে দলের অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। চার বছরের জন্য দলটির সাথে চুক্তি করেছেন কামিন্স। এমএলসি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে কামিন্স অন্যতম বড় তারকা হিসেবে যোগ দিলেন।

এমএলসিতে কামিন্সের যোগ দেয়ার ব্যাপারটি বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে। এর পূর্বে, তিনি মাত্র একটি বিদেশি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগেই খেলেছেন। ভারতের আইপিএল বাদ দিলে তার নিজের দেশের বিগব্যাশও ২০১৮-১৯ মৌসুমের পর আর খেলেননি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের দায়বদ্ধতাকেই বরং বেশি গুরুত্ব দিয়ে দেখেছেন এ অজি পেসার।

এসএফ ইউনিকর্নে যোগ দেয়ার ব্যাপারে ফ্র্যাঞ্চাইজিটিকে দেয়া বিবৃতিতে কামিন্স বলেন, ‘এমএলসি দ্রুত উন্নতি করছে ও যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ক্রিকেটের সম্ভাবনা বিশাল। যদিও, ক্রিকেট আমার মনোযোগের কেন্দ্রীয় জায়গা, বৈশ্বিক নেটওয়ার্ক ও মালিক পক্ষ যে দীর্ঘ মেয়াদি সম্ভাবনা প্রস্তাব করছে এবং আরো বড় করে বললে সিলিকন ভ্যালি আমার সামনে ক্রিকেট ছাড়িয়ে র বড় সম্ভাবনা নিয়ে হাজির হয়েছে।’

তিনি যোগ করেন, ‘আনন্দ (রাজারামন) এবং ভেঙ্কি (হরিনারায়ণ, এসএফ ইউনিকর্নের সহমালিক এবং সিলিকন ভ্যালির উদ্যোক্তা) একটা বাণিজ্যিক পৃথিবী চালান, যেটা আমাকে তীব্রভাবে আকর্ষণ করে এবং আমি এর অংশ হওয়ার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি।’

টি-২০ বিশ্বকাপের পর ৬-২৯ জুলাই পর্যন্ত এমএলসির এবারের আসর হওয়ার কথা। অস্ট্রেলিয়ার ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রাম (এফটিপি) অনুযায়ী, আগামী বছর জুন-জুলাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে যাওয়ার কথা। এ সফরে দুইটি টেস্ট ও তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলবে অস্ট্রেলিয়া। কামিন্স এ সময়ে কীভাবে অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলের জন্য নিজেকে উপলব্ধ রাখবেন, তা এখন দেখার ব্যাপার। টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়াকে নেতৃত্ব না দিলেও টেস্ট ও ওয়ানডেতে তিনিই অজিদের অধিনায়ক। এছাড়া, চলতি বছর আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে নেতৃত্ব দিয়ে ফাইনালে তুলেছিলেন কামিন্স।

কামিন্সের সাথে এসএফ ইউনিকর্নে নাম লিখিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার হার্ডহিটার ওপেনার জ্যাক ফ্রেজার-ম্যাকগার্কও। এছাড়া, ওয়াশিংটন ফ্রিডমেও বেশ কয়েকজন হাই প্রোফাইল অস্ট্রেলিয়ানকে খেলতে দেখা যাবে। যাদের মধ্যে আছেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, ট্রাভিস হেড ও স্টিভেন স্মিথ। ওয়াশিংটনের হয়ে নিউজিল্যান্ডের রাচিন রবীন্দ্রকেও খেলতে দেখা যেতে পারে।

এছাড়াও, এবারের এমএলসিতে আরো কয়েকজন উল্লেখযোগ্য তারকাকে দেখা যাবে। সাকিব আল হাসান ও ডেভিড মিলারকে দেখা যাবে লস অ্যাঞ্জেলেস নাইট রাইডার্সে, আনরিখ নরকিয়া ও রোমারিও শেফার্ড এমআই নিউ ইয়র্কে, এইডেন মার্করাম ও ড্যারেল মিচেল টেক্সাস সুপার কিংসে, নান্দ্রে বার্গার এবং ওবেদ ম্যাকয় খেলবেন সিয়াটল ওরকাসের হয়ে।

সিএন/আলী

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন