মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪

শিরোনাম

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্যাশন ব্র্যান্ডগুলোর কাছে সবচেয়ে আকর্ষণীয় বাংলাদেশের পোষাক

রবিবার, আগস্ট ২০, ২০২৩

প্রিন্ট করুন
লকডাউনে পোশাক কারখানা 1
লকডাউনে পোশাক কারখানা 1

সিএন প্রতিবেদন: দাম বিবেচনায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্যাশন ব্র্যান্ডগুলোর কাছে তৈরি পোশাকের সবচেয়ে আকর্ষণীয় উৎস বাংলাদেশ। বিশ্বের তৈরি পোশাক প্রস্তুতকারক দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ সবচেয়ে লাভজনক। এক্ষেত্রে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ভিয়েতনাম পিছিয়ে পড়েছে। মার্কিন ফ্যাশন মালিক সমিতির এক গবেষণা জরিপে এ চিত্র উঠে এসেছে।

চলতি মাসে প্রকাশিত ইউনাইটে স্টেটস ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি অ্যাসোসিয়েশনের (ইউএসএফআইএ) জরিপের তথ্য অনুযায়ী, গতবছর (২০২২ সালে) যুক্তরাষ্ট্রের ক্রেতাদের জন্য তৈরি পোশাকের শীর্ষ সরবরাহকারী হিসেবে এশিয়ার অবস্থান অক্ষুণ্ন আছে। যুক্তরাষ্ট্রে পোশাক রপ্তানিকারক শীর্ষ ১০টি দেশের মধ্যে সাতটিই এশিয়ায়। বাংলাদেশের পোশাক সস্তা হলেও যুক্তরাষ্ট্রে সর্বোচ্চ রপ্তানিকারক দেশের শীর্ষে আছে চীন, ভিয়েতনাম দ্বিতীয় অবস্থান ধরে রেখেছে। বাংলাদেশর পর ভারতের অবস্থান।

ইউএসএফআইএর শীর্ষ জরিপ প্রতিবেদন ‘২০২৩ ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি বেঞ্চমার্কিং স্টাডি’ আগস্টের প্রথম সপ্তাহে প্রকাশিত হয়। গত বছর এপ্রিল থেকে জুনের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ ৩০টি ফ্যাশন ব্র্যান্ডের নির্বাহীদের সাক্ষাৎকার নিয়ে এই জরিপ করা হয়েছে।

এতে দেখা যায়, সামাজিক ও শ্রম বিষয়ে উপযুক্ত পরিবেশ বিবেচনায় বাংলাদেশের পোশাক কারখানাগুলোর মান বেশ উন্নত হয়েছে। রানা প্লাজা ধসের পর বাংলাদেশের পোশাক শিল্পে সামাজিক দায়িত্বশীলতা চর্চার উন্নয়নে অংশীদার সকল পক্ষের সামষ্টিক প্রচেষ্টার ফলে এই উন্নতি হয়েছে বলে জরিপে উঠে এসেছে।

চীন, ভিয়েতনাম ও কম্বোডিয়ায় তৈরি পোশাক শিল্পের সার্বিক কর্মপরিবেশ নিয়ে অনেক আপত্তি উঠেছে। এইসব বিষয়ে গত দুই বছরে বাংলাদেশ বেশ উন্নতি করেছে। দামের প্রতিযোগিতামূলক অবস্থানের দিক থেকে বাংলাদেশের রেটিং ২০২২ সালের ২ থেকে বেড়ে ২০২৩ সালে ২.৫ হয়েছে।

সিএন/এমটি

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন