বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪

শিরোনাম

যুক্তরাস্ট্রের কমার্শিয়াল কাউন্সেলরের সাথে চট্টগ্রাম চেম্বারের মত বিনিময়

সোমবার, অক্টোবর ১৬, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

চট্টগ্রাম: বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাস্ট্রের কমার্শিয়াল কাউন্সেলর জন ফের সাথে মত বিনিময় সভা করেছে দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি। সোমবার (১৬ অক্টোবর) চট্টগ্রাম সিটির আগ্রাবাদস্থ ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের চেম্বার কার্যালয়ে এ সভার আয়োজন করা হয়। চেম্বারের সভাপতি ওমর হাজ্জাজ, সহ-সভাপতি রাইসা মাহবুব, পরিচালক একেএম আক্তার হাসেন, মো. অহীদ সিরাজ চৌধুরী (স্বপন), অঞ্জন শেখর দাশ, মো. রকিবুর রহমান (টুটুল), মাহফুজুল হক শাহ, মোহাম্মদ আদনানুল ইসলাম, ওমর মুক্তাদির, দূতাবাসের কমার্শিয়াল স্পেশালিস্ট আবির বড়ুয়া সভায় উপস্থিত ছিলেন।

সভায় ওমর হাজ্জাজ বলেন, ‘বাংলাদেশে যুক্তরাষ্টের দূতাবাসে প্রথম বারের মত কমার্শিয়াল কাউন্সেল চালু করার ব্যাপারটি প্রমাণ করে বাংলাদেশ এখন যুক্তরাষ্ট্রের কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্য ও বিনিয়োগ কেন্দ্র হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে; যা আমাদের বর্তমান সরকারের ধারাবাহিক উন্নয়নের ফসল। তাই, দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্প্রসারণের জন্য এখনই উপযুক্ত সময়। কেননা, সাম্প্রতিক অবকাঠামগত উন্নয়ন ও বিপুল জনশক্তিকে কাজে লাগিয়ে চায়না ও ভিয়েতনামের পাশাপাশি বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের জন্য একটি অন্যতম ম্যানুফ্যাকচ্যারিং হাব হয়ে উঠতে পারে।’

যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশের নবায়নযোগ্য জ্বালানী, পেট্রোলিয়াম, লেদার, জুট, ফুড প্রসেসিং, এগ্রো, হেলথ ও ফার্মাসিউটিক্যালসসহ বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগের আহবান এবং চেম্বার থেকে সর্বোচ্চ সহযোগিতার আশ্বাস তিনি।

জন ফে বলেন, ‘বাংলাদেশে অবকাঠামো ও কানেক্টিভিটির অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে। এছাড়া, ক্রমবর্ধমান মাথাপিছু আয়ের ১৭ কোটি মানুষের বিশাল ভোক্তা বাজারের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগকারীদেরও আগ্রহ বাড়ছে। তবে, দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ও বিনিয়োগের বিপুল সম্ভাবনাকে বাস্তবে রূপ দিতে হলে বিদেশী বিনিয়োগকারীদের জন্য আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত পলিসি সহজ করা জরুরী।’

তিনি লজিস্টিক খাতে উন্নত অবকাঠামোর পাশাপাশি কাস্টমস ও পোর্টসহ প্রয়োজনীয় সেবাগুলোর নীতিগত সহজীকরণ ও সময় সাশ্রয়ী করার উপর গুরুত্বারোপ করেন।

জন ফে বাংলাদেশের স্বাস্থ্য খাতে প্রযুক্তিগত আধুনিয়কায়নে যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগকারীদের আগ্রহের কথা উল্লেখ করেন ও দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য সম্প্রসারণে চিটাগাং চেম্বারের সাথে কাজ করার আশা প্রকাশ করেন।

রাইসা মাহবুব বাংলাদেশে বিপুল যুব সমাজকে সঠিক কারিগরী প্রশিক্ষণের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগকারীদের উপযুক্ত করে গড়ে তোলার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সাথে কাজ করার আহবান জানান।

সিএন/এমএ

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন