রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪

শিরোনাম

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র ব্যক্তিগতভাবে দেখভাল করার আশ্বাস পুতিনের

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ৫, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

সিএন প্রতিবেদন: রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র ব্যক্তিগতভাবে দেখভাল করবেন বলে আশ্বস্ত করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

বৃহস্পতিবার (০৫ অক্টোবর) বেলা ৩টা ৫২ মিনিটে ইউরেনিয়াম হস্তান্তর প্রক্রিয়া শেষে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে তিনি এই আশ্বাস দেন। এর আগে ইউরেনিয়াম হস্তান্তর প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে রাশিয়া। এর মধ্য দিয়ে পারমাণবিক জ্বালানি ‘ফ্রেশ নিউক্লিয়ার ফুয়েল’ বা ইউরেনিয়ামের মালিক হলো বাংলাদেশ। অনুষ্ঠানে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়াল উপস্থিত ছিলেন।

ক্রেমলিন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে পুতিন বলেন, ‘পাবনায় রাশিয়া পরিকল্পিত পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মিত হচ্ছে। পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্মাণের পুরো সময় জুড়ে ব্যক্তিগতভাবে দেখভাল করব।’

রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘শুধু বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করে নয়, এই পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের পুরো লাইফ সাইকেলে আমরা বাংলাদেশি অংশীদারিদের পাশে থাকব, সমর্থন করব।’

বাংলাদেশকে রাশিয়ার পরীক্ষিত বন্ধু উল্লেখ করে পুতিন বলেন, ‘দুই দেশের সম্পর্ক—সমতা ও শ্রদ্ধার মধ্যে নিহিত। পরস্পরের স্বার্থ মেনে নেওয়ার মধ্যেই এটি নির্মিত হচ্ছে।’

এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র বাংলাদেশের বিদ্যুতের মোট চাহিদার ১০ শতাংশ জোগান দেবে উল্লেখ করে পুতিন বলেন, এটি বাংলাদেশের দ্রুত বৃদ্ধিমূলক অর্থনীতির চাহিদা পূরণে বড় সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

রাশিয়া ও বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের উজ্জ্বল উদাহরণ হচ্ছে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের এই যৌথ প্রকল্প বাস্তবায়ন বলে উল্লেখ করেন পুতিন।

পুতিন বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পদাঙ্ক অনুসরণ করে তাঁর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের অসমাপ্ত উন্নয়নকাজ সমাপ্ত করছেন। পিতার অসমাপ্ত কাজ সফলভাবে ও সম্মানের সঙ্গে অব্যাহত রাখছেন।’

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মতো এই ফ্ল্যাগশিপ প্রকল্পে দুই দেশের স্বার্থ রয়েছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘এই প্রকল্প পরস্পরের জন্য উপকার এবং সহযোগিতা মজবুত করছে। এটি বাংলাদেশের অর্থনীতি ও জ্বালানি শক্তি নিরাপত্তায় অবদান রাখবে।’

অনুষ্ঠানে বিজ্ঞান ও জ্বালানি প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াসাদ ওসমানসহ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান রোসাটমের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সিএন/এমটি

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন