সোমবার, ২০ মে ২০২৪

শিরোনাম

রেকর্ড গড়ে টাইগারদের আফগান বধ

শনিবার, জুন ১৭, ২০২৩

প্রিন্ট করুন

মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম: বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের মধ্যকার একমাত্র টেস্ট ম্যাচে ৫৪৬ রানের বিশাল জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। ১৯৩৪ সালের পর এটাই ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে বড় জয়।

শনিবার (১৭ জুন) মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে চতুর্থ দিনে নিজেদের ২য় ইনিংস খেলতে নামে আফগান বাহিনী। প্রথম সেশনেই আফগানদের ১১৫ রানে গুঁড়িয়ে ৫৪৬ রানের বিশাল জয় পায় লিটন দাসের দল।

আগের দিন বাংলাদেশ নিজেদের ২য় ইনিংসে ৪ উইকেট হারিয়ে ৪২৫ রান করে ইনিংস ঘোষনা করলে আফগানদের সামনে ৬৬২ রানের পাহাড়সম টার্গেট দাড়ায়। লিটন দাস ইনিংস ঘোষনা না করলে হয়তো দক্ষিন আফ্রিকার দেওয়া ৬৯৬ রানের টার্গেটটিকেও অতিক্রম করে যেতে পারতো।

৬৬২ রানের ভাড়ায় নেমে ৪৫ রানে ২ উইকেট হারিয়ে ৩য় দিনের খেলা শেষ করে। ৪র্থ দিনের শুরুতেই ৩য় ওভারে ইবাদতের বলে ক্যাচ আউটের শিকার হন নাসির জামাল। আগেরদিন তাসকিনের বাউন্সারে মাথায় আঘাত পেয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে যান অধিনায়ক হাসমতুল্লাহ শহিদি। তাসকিনের বাউন্সারে সুবিধা করতে পারেননি দলের অন্যতম সেরা ব্যাটার রহমত শাহও। লাঞ্চ বিরতির ঠিক আগেই মিরাজের বলে সুইপ করতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দেন হামজা হোটাক। একে একে সব উইকেট হারিয়ে ১১৫ রানে গুটিয়ে যায় প্রথম ইনিংসে ১৪৬ রান করা আফগান বাহিনী।

বাংলাদেশের পক্ষে উভয় ইনিংসে বাংলাদেশের দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে জোড়া সেঞ্চুরি করেন নাজমুল হোসেন শান্ত।২ বছরের দীর্ঘ খরা কাটিয়ে ২য় ইনিংসে নিজের ১২তম সেঞ্চুরি তুলে নেন সাবেক অধিনায়ক মুমিনুল হক।

১৪৬ বছরের টেস্ট ইতিহাসে বাংলাদেশের এই জয় তৃতীয় সর্বোচ্চ।আগের দুটি ছিল ১৯২৮ সালে অজিদের বিপক্ষে ইংল্যান্ডের ৬৭৫ রানের জয় ও ১৯৩৪ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার ৫৬২ রানের জয়। টেস্টে সর্বোচ্চ রানের ব্যবধানে জয়ের দিক দিয়ে এর আগে বাংলাদেশের রেকর্ডটি ছিল ২০০৫ সালে জিম্বাবুয়ের সাথে ২২৬ রানের।

সিএন/এমটি

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন