বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪

শিরোনাম

শাহজালাল বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল প্রকল্পে ব্যবহার হবে বার্জারের পণ্য

সোমবার, ফেব্রুয়ারী ২১, ২০২২

প্রিন্ট করুন

ঢাকা: আমিন মোহাম্মদ কনস্ট্রাকশনস লিমিটেডের (এএমসিএল) সাথে সম্প্রতি চুক্তি সই করেছে বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেড (বিপিবিএল)। এ চুক্তির আওতায় পেইন্ট সল্যুশন ব্র্যান্ডটি এএমসিএলের মাধ্যমে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর (তৃতীয় টার্মিনাল) সম্প্রসারণ প্রকল্পে সব প্রকার পেইন্ট ও কনস্ট্রাকশন কেমিক্যাল সল্যুশন দেবে।

বার্জার সেলস অ্যান্ড মার্কেটিংয়ের সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার মো. মহসীন হাবিব চৌধুরী এবং এএমসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. রমজানুল হক নিহাদ চুক্তিতে সই করেন। অনুষ্ঠানে বার্জারের জেনারেল ম্যানেজার (মার্কেটিং) এ কে এম সাদেক নেওয়াজ, নন-ডেকোরেটিভের ন্যাশনাল সেলস ম্যানেজার মো. হাসানুজ্জামান, প্রজেক্ট প্রোলিংকস ও বার্জার এক্সপেরিয়েন্স জোনের প্রধান সাব্বির আহমেদ, হেড-প্রোলিংকস মোহাম্মদ তারিকুল ইসলাম এবং এএমসিএলের নির্বাহী পরিচালক (অপারেশন) মোহাম্মদ তানভীরুল ইসলাম, হেড অব অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড ফাইন্যান্স এসএম. ইলিয়াস আমীন, হেড অব বিজনেস ডেভেলপমেন্ট মো. রাশেদুজ্জামান ও হেড অব সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট আহসান হাবীব উপস্থিত ছিলেন।

এ সম্প্রসারণ প্রকল্পের ইপিসি কনট্রাক্টর এভিয়েশন ঢাকা কনসোর্টিয়াম (এডিসি) পেইন্টিংসহ ফিনিশিং কাজের জন্য এএমসিএলকে কনট্রাক্টর হিসেবে নিযুক্ত করেছে। সম্প্রতি এ অংশীদারিত্বের পরে, এএমসিএল এখন হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর (তৃতীয় টার্মিনাল) প্রকল্পের প্রয়োজনীয় সব প্রকার পেইন্ট ও কনস্ট্রাকশন কেমিক্যাল সল্যুশন বার্জার থেকে নিতে যাচ্ছে৷

উল্লেখ্য, এএমসিএল এর সব সরকারি ও বেসরকারি প্রকল্পে বিপিবিএল পেইন্ট ও পণ্য ব্যবহারের জন্য আগে একটি চুক্তি সই করে। সর্বশেষ চুক্তি সই, সরকারি-বেসরকারি সব ধরনের চাহিদা পূরণে সর্বোচ্চ সহায়তা প্রদানে বার্জারকে আরো এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে গেছে।

মো. মহসিন হাবিব চৌধুরী বলেন, ‘বৃহৎ সরকারি ও বেসরকারি প্রকল্পে দীর্ঘ স্থায়ীত্বের জন্য সবচেয়ে ভাল মানের পণ্য ব্যবহার করা প্রয়োজন। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর তৃতীয় টার্মিনাল প্রকল্পটি দেশ-বিদেশের লাখো মানুষকে সেবা দেবে। তাই, এ প্রকল্পে বার্জরের সেবা ও পণ্য সরবরাহ করতে যাচ্ছে। আমরা ধারাবাহিকভাবেই সেরা পেইন্ট সল্যুশন ব্র্যান্ড হিসেবে বাজারে নিজেদের জায়গা প্রতিষ্ঠিত করে আসছি। সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে প্রকল্পটি সফল করতে সার্বিক সহযোগিতার জন্য আমিন মোহাম্মদ কনস্ট্রাকশনকে ধন্যবাদ।’

সিএন/এমএ

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন