রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪

শিরোনাম

শিকাগোয় স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে গুলি, নয়জনের মৃত্যু, আহত ৫৭

মঙ্গলবার, জুলাই ৫, ২০২২

প্রিন্ট করুন

শিকাগো, ইলিনয়: বাতাসের শহর হিসেবে খ্যাত ইলনয় রাজ্যের শিকাগো শহরের উপকণ্ঠে আমেরিকার ২৪৬তম স্বাধীনতার দিবসের অনুষ্ঠানে বন্দুকধারীর হামলার ঘটনা ঘটেছে। গুলিতে প্রাণ গেছে নয় জনের। এ ঘটনায় অন্তত ৫৭ জন আহত হয়েছেন। খবর বিবিসি ও আনন্দবাজার পত্রিকার।
শিকাগোর পুুলিশ সূত্রে খবর, প্রায় আট ঘণ্টা ধরে শিকাগোর বিভিন্ন জায়গায় গুলি চালিয়েছেন আততায়ী। ওই বন্দুকধারীর হামলায় শিকাগোর ইলিনয়ের সাউথ ওয়েন্টওয়ার্থ অ্যাভিনিউয়ে ২৪ বছর বয়সি এক তরুণীর মৃত্যু হয়েছে। গ্র্যান্ড ক্রসিংয়ের কাছেও তিন জনের মৃত্যু হয়েছে তার গুলিতে। গুলি হামলায় আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে।

থানীয় সময় সোমবার (৪ জুলাই) স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে হাইল্যান্ড পার্ক শহরে কুচকাওয়াজ চলছিল। এ সময় কয়েকটি গুলির শব্দ শোনা যায়। ফলে কুচকাওয়াজ শুরুর দশ মিনিট পর বন্ধ করে দেওয়া হয়।

হামলার পর ১৮-২০ বছর বয়সী একজন সন্দেহভাজন শেতাঙ্গকে খুঁজছে পুলিশ। তার কাছে অস্ত্র রয়েছে, যা বিপজ্জনক বলে উল্লেখ করেছেন পুলিশ কর্মকর্তারা।

হাইল্যান্ড পার্কের আশেপাশের এলাকা নিরাপত্তা বলয়ে আনা হয়েছে বলে বিবৃতিতে জানিয়েছে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শী আমারানি গার্সিয়া নিজের ছোট মেয়েকে নিয়ে প্যারেডে অংশ নিয়েছিলেন। তিনি জানান, কাছেই গুলির শব্দ শুনেন। এরপর কিছুক্ষণ বন্ধ ছিল। গুলি রিলোড করা হচ্ছিল বলে তার ধারণা। পরে আরো গুলির শব্দ শুনতে পান তিনি।

গার্সিয়া বলেন, ‘মানুষ চিৎকার করছিল ও দৌঁড়াচ্ছিল। আমি খুব ভয়ে ছিলাম। একটি ছোট দোকানে মেয়েকে নিয়ে লুকিয়ে পড়ি। আমার মনে হচ্ছিল আমরা আর নিরাপদ নই।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, তাদের ধারণা গুলিবর্ষণকারী একটি দোকানের ছাদে অবস্থান নিয়েছিল ও প্যারেডের জমায়েত লক্ষ্য করে গুলি করে সে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা গেছে, প্যারেডের ব্যান্ড ও অংশগ্রহণকারীদের শৃঙ্খলা হঠাৎ করে ভেঙে যায়। বড় ধরনের কয়েকটি শব্দ শোনার পর লোকজন দৌঁড়াতে শুরু করেন।

হাইল্যান্ড পার্ক শহর কর্তৃপক্ষ ও পুলিশ জানিয়েছে, সোমবার (৪ জুলাই) সকাল সোয়া দশটার দিকে সন্দেহভাজন হামলাকারী কুচকাওয়াজের অনুষ্ঠানে হামলা চালান। আশপাশের কোন ভবনে ছাদ থেকে ওই হামলা চালানো হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত বছরও আমেরিকার স্বাধীনতা দিবসের সপ্তাহে বন্দুকধারীর গুলিতে ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছিল। আহত হয়েছিলেন অন্তত ১০০ জন।

সিএন/এমএ

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন