শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪

শিরোনাম

সিপিবির প্রেসিডিয়াম সদস্য মিহির ঘোষসহ আটককৃতদের মুক্তির দাবি

রবিবার, ফেব্রুয়ারী ১৩, ২০২২

প্রিন্ট করুন

চট্টগ্রাম: প্রেসিডিয়াম সদস্য মিহির ঘোষ ও সাদেকুল ইসলামসহ সব নেতাকর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তি ও গণ বিরোধী ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি)। দলের চট্টগ্রাম ও দক্ষিণ জেলার উদ্যোগে শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বিকালে চট্টগ্রাম সিটির সিনেমা প্যালেস চত্বরে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সিপিবি চট্টগ্রাম জেলার সভাপতি অশোক সাহার সভাপতিত্বে ও সহকারী সাধারণ সম্পাদক নুরুচ্ছাফা ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সভাপতি কানাই লাল দাশ, চট্টগ্রাম জেলার সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, জেলা কমিটির সদস্য উত্তম চৌধুরী, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী, কোতোয়ালি থানার সভাপতি প্রদীপ ভট্টাচার্য, জেলা কমিটির সদস্য রবিউল হোসেন ও ছাত্র নেতা মাহবুবা জাহান রুমি।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার দেশের গণতান্ত্রিক অধিকার, ভোটাধিকার ও মত প্রকাশের স্বাধীনতা হরণ করে দূর্নীতি ও লুটপাটের শাসন কায়েম করেছে। সেই ঘুষ-দূর্নীতি-লুটপাট ও ভোট ডাকাতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়। এ মামলা মূলত সরকারের অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে কমিউনিস্টদের কণ্ঠরোধ করার অপচেষ্টা। সম্প্রতি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ভোট ডাকাতির বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদ করায় সিপিবির প্রেসিডিয়াম সদস্য কমরেড মিহির ঘোষসহ গাইবান্ধার নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মিথ্যা মামলা ও গ্রেফতার করা হয়।’

বক্তারা আরো বলেন, ‘স্বাধীনতার ৫০ বছরে এসেও দেশের জনগণকে গণ বিরোধী ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আটক, নির্যাতন ও হয়রানি করা অত্যন্ত লজ্জাজনক। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সংবিধান পরিপন্থী। হামলা-মামলা ও গ্রেফতার করে সিপিবির অগ্রযাত্রাকে কখনো থামানো যাবে না। ভয়ভীতি দেখিয়ে অতীতে কখনো সিপিবির অগ্রগতিকে থামানো যায়নি। জনগণের ভেতরে থেকেই সিপিবি গড়ে উঠেছে।’

বক্তারা বলেন, ‘দ্রুত কমরেড মিহির ঘোষসহ অন্য নেতাদের নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে ও সবাইকে নিঃশর্তে মুক্তি দিতে হবে। একই সাথে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করে মানুষের বাকস্বাধীনতা নিশ্চিত করতে হবে। অন্যথায় দেশব্যাপী গণআন্দোলন গড়ে তুলে কমরেড মিহির ঘোষসহ অন্য নেতাদের মুক্তি নিশ্চিত ও গণ বিরোধী ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের জন্য বাধ্য করা হবে।’

সিএন/এমএ

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন