শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪

শিরোনাম

সৌদির ওপর অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিনিময়ে আরো তেল চায় আমেরিকা

মঙ্গলবার, জুলাই ১২, ২০২২

প্রিন্ট করুন

চলমান নিউইয়র্ক ডেস্ক: সৌদি আরবের কাছে অস্ত্র বিক্রির ওপর যে নিষেধাজ্ঞা ছিল, তা তুলে নেয়ার চিন্তা করছে আমেরিকা; তবে এর বিনিময়ে ওয়াশিংটন চাইছে সৌদি আরব তেলের উৎপাদন বৃদ্ধি করুক; যাতে আমেরিকায় জ্বালানির দাম কমে আসে। খবর রয়টার্সের।

চলতি সপ্তাহে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সৌদি আরব সফর করবেন। তার আগ মুহূর্তে এ সংবাদ বের হল। বিষয়টি এখনো একেবারেই প্রাথমিক পর্যায়ে ও আমেরিকার অভ্যন্তরীণ বিষয় হিসেবে রয়েছে। এটি এখনো সিদ্ধান্ত গ্রহণের পর্যায়ে আসে নি।

মার্কিন এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বিষয়টি নিয়ে এখনো সৌদি আরবের সাথে আলোচনা হয়নি।

সূত্রগুলো বলছে, ‘ইয়েমেনের ওপর সৌদি আরব যে আগ্রাসন চালিয়ে আসছে, তা বন্ধের বিষয়ে রিয়াদের মনোভাবের ওপর অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিষয়টি নির্ভর করছে।’

সূত্রগুলো দাবি করছে, যুদ্ধের রাজনৈতিক সমাধান চায় ওয়াশিংটন।

মার্কিন কর্মকর্তারা এ দাবি করলেও বাস্তবতা হচ্ছে- ইয়েমেনের ওপর আগ্রাসন চালানোর ক্ষেত্রে সৌদি আরব ও তার মিত্র দেশগুলো মার্কিন নির্মিত অস্ত্র ব্যবহার করছে এবং এ নিয়ে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে ব্যাপক সমালোচনা রয়েছে। ইয়েমেন যুদ্ধের পরিপ্রেক্ষিতে জো বাইডেন সৌদি আরবকে এক সময় ‘অচ্ছুত’ দেশ বলে মন্তব্য করেছিলেন।

এরপরও সৌদি আরব চাইছে, যে কোন কিছুর বিনিময়ে রিয়াদের ওপর থেকে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হোক। তবে এখনো মার্কিন প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে সুস্পষ্ট ইতিবাচক কোন ইঙ্গিত পাওয়া যায় নি।

ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের প্রেক্ষাপটে আন্তর্জাতিক বাজারে তেল ও গ্যাসের দাম আকাশচুম্বি হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য এখন আমেরিকা সৌদি আরবের সাথে নিজের সম্পর্ক পুনঃনির্ধারণের চেষ্টা করছে।

সিএন/এমএ

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন